গুণবতীতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক, ভোট হচ্ছে সুষ্ঠু

download-8-10.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : চতুর্থ ধাপে অন্য ৮৩৭টি ইউনিয়ন পরিষদের মতো কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থানার গুণবতী ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ চলছে। রোববার (২৬ ডিসেম্বর) সকাল ৮টায় শুরু হয় ভোটগ্রহণ, চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোট চলাকালে দুপুর পর্যন্ত অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটেনি।

এ ইউনিয়নের গুণবতী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, ভোটারদের দীর্ঘ সারি। কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মোহাম্মদ ইলিয়াস জানান, এ কেন্দ্রে মহিলা এবং পুরুষ মিলিয়ে ভোটার সংখ্যা ৩৭২৯টি। এর মধ্যে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এক হাজারেরও বেশি ভোট পড়েছে।

নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা ম্যাজিস্ট্রেট (সহকারী কমিশনার, ভূমি-চান্দিনা) রাকিবুল ইসলাম  বলেন, ভোটে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। এজন্য ভোট সুষ্ঠু হচ্ছে। এখন পর্যন্ত কোনো সমস্যা হয়নি।

আরও পড়ুন : নায়িকার সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জনে যা বললেন পরিচালক

তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রের বাইরে সামান্য ঝামেলা হয়েছিল। আমরা এসে সমাধান করেছি।

এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীক নিয়ে ছৈয়দ আহাম্মদ ভুঁইয়া খোকন এবং আনারস প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তফা কামাল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অন্যদিকে ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডের প্রত্যেকটিতেই একাধিক প্রার্থী সাধারণ সদস্য (মেম্বার) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া সংরক্ষিত নারী সদস্য (মেম্বার) পদেও লড়ছেন প্রার্থীরা।

গুণবতীসহ চতুর্থ ধাপে সারাদেশের ৮৩৮টি ইউনিয়ন পরিষদ ও তিনটি পৌরসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সকাল ৮টায় শুরু হয়েছে। এ ধাপের ইউপি ভোট ২৩ ডিসেম্বর হওয়ার কথা থাকলেও পরে ভোটগ্রহণের দিন আরও তিন দিন পিছিয়ে দেয় নির্বাচন কমিশন।

ইসির তথ্যানুযায়ী, চতুর্থ ধাপে ইউপি ভোটে চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত নারী সদস্য ও সাধারণ সদস্য- এ তিন পদে মোট ৪৬ হাজার ৫৭২টি মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে মোট ৪ হাজার ৯১৮ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন। এর মধ্যে স্বতন্ত্র হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন তিন হাজার ৫৪৬ জন।

সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৯ হাজার ৮৫০ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩১ হাজার ৮০৪ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। যাচাই-বাছাই শেষে চেয়ারম্যান পদে ৩ হাজার ৮১৪ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৯ হাজার ৫১৩ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩০ হাজার ১০৬ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

ইসির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪৮ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১১২ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ১৩৫ জন প্রার্থী বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। সবমিলিয়ে এ ধাপে মোট ২৯৫ জন প্রার্থী বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ১৬টি রাজনৈতিক দল এই ধাপে প্রার্থী দিয়েছে। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী সংখ্যা তিন-চতুর্থাংশ।

এর আগে তৃতীয় ধাপে ৫৬৯ জন, দ্বিতীয় ধাপে ৩৬০ জন এবং প্রথম ধাপে ১৩৮ জন প্রার্থী বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

ছয় ধাপে ইউপি ভোটের তফসিল ঘোষণা করে ইসি। এর মধ্যে তিন ধাপের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। আজ চতুর্থ ধাপের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top