খুলনায় র‌্যাবের অভিযানে কথিত ‘মক্ষীরাণী ময়না’ গ্রেফতার

1639980689_Arest.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট :  মৌসুমী পারভীন ময়না। বয়স ৩২। ফেসবুকে ভুয়া একাউন্ট খুলে গত কয়েক বছরে অসংখ্য পুরুষকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে সর্বশান্ত করেছেন। করেছেন একাধিক বিয়ে। তার সিন্ডিকেটে রয়েছে ভুয়া উকিল, ভুয়া কাজী, ভুয়া ডাক্তার ও ভুয়া সরকারী কর্মকর্তা। জাল কাবিননামা করে বহু মানুষের কাছ থেকে হাতিয়ে নিয়েছেন বিপুল পরিমান অর্থ। মামলা দিয়ে হয়রানি করেছেন অনেককে। অবশেষে র‌্যাবের জালে ধরা পড়েছে এই নারী প্রতারক।

আজ সোমবার র‌্যাব জানিয়েছে, ১৯ ডিসেম্বর বিকালে র‌্যাব-৬ এরএকটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলার ফুলতলা থানাধীন খানজাহানপুর এলাকা থেকে এই নারী প্রতারককে গ্রেফতার করে। সে ওই এলাকার মৃত কাজী আকবর হোসেনের কন্যা। এলাকায় সে ‘মক্ষীরাণী ময়না’ নামে পরিচিত।

আরও পড়ুন :প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখে যাচ্ছি: শেখ হাসিনা

র‌্যাব আরো জানায়, মৌসুমী পারভীন ময়না দীর্ঘদিন ধরে জাল সনদ, আইডি কার্ড তৈরীসহ বিভিন্ন সরকারী জালকাগজপত্র দেখিয়ে তার নিজ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের নিকট হতে প্রতারনার মাধ্যমে মোটা অংকের টাকা আত্নসাৎ করে আসছে। এছাড়াও জাল কাবিননামা প্রদর্শন ও মিথ্যা তথ্য দিয়ে টাকা আত্নসাতের জন্য মিথ্যা মামলা প্রদানসহ প্রতারনার মাধ্যমে একাধিক পুরুষের সাথে এবং একই পুরুষের সাথে একাধিকবার বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার সংবাদও পাওয়া যায়।

তার এসব কর্মকান্ডের জন্য এলাকার স্থানীয় গন্যমাণ্য ব্যক্তিগণ সর্বদা ভয় ও আতঙ্কের মধ্যে অবস্থান করছিলেন এবং নিজেদের সম্মান বাঁচানোর জন্য তাকে এড়িয়ে চলতেন। একটি বিশেষ সিন্ডিকেটের মাধ্যমে সমাজের সম্মানিত ব্যক্তিদের হেনস্থা করতেন। তার সিন্ডিকেটে ভুয়া উকিল, ভুয়া কাজী, ভুয়া ডাক্তার ও ভুয়া সরকারী কর্মকর্তা রয়েছে। সে ফেসবুক আইডির মাধ্যমে একাধিক পুরুষের সাথে ‘এডাল্ট কনটেন্ট’ শেয়ারিং সহ বিভিন্ন প্রকার অসামাজিক কর্মকান্ডে লিপ্ত বলে প্রাথমিকভাবে প্রতীয়মান হয়েছে। তার বিরুদ্ধে যশোর জেলার অভয়নগর থানায় ১৯ ডিসেম্বর দায়ের হওয়া প্রতারণা মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারের পর তাকে যশোরের অভয়নগর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top