জাওয়াদের প্রভাবে রাজধানীসহ সারা দেশে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি

image-495517-1638845566-1-1.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : শক্তি হারিয়ে বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপে পরিণত হওয়া ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে মঙ্গলবারও রাজধানীসহ সারা দেশে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উপকূলীয় জেলাগুলোসহ বিভিন্ন জেলায় শনিবার মধ্যরাত থেকে টানা গুঁড়ি গুঁড়ি ও মাঝারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে।নদনদীতে জোয়ারের পানি স্বাভাবিকের চেয়ে কয়েক ফুট বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। বৃষ্টি-বাতাসে বেড়েছে শীত।

জাওয়াদের প্রভাবে সোমবার মধ্যরাত থেকে রাজধানীসহ সারা দেশেই মুষলধারায় বৃষ্টিপাত শুরু হলেও মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি পড়ছে।প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যে অফিসগামী লোকজন কর্মস্থলে যাচ্ছেন। রাজধানীতে বিভিন্ন রুটে বৃষ্টির কারণে যাত্রী কম থাকায় বাসও কম দেখা গেছে।

ফলে রাজধানীবাসী পড়েছে দারুণ বিপাকে। বৃষ্টির কারণে অফিসগামী থেকে শুরু করে সাধারণ যাত্রীরা যাতায়াতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’ আরও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপ এবং পরে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে।

এটি সোমবার উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করছিল। মঙ্গলবার এটি আরও উত্তর ও উত্তর-পূর্বদিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হতে পারে।

আরও পড়ুন :জানুয়ারিতেই ক্রিকেটকে বিদায় বলছেন গেইল?

জাওয়াদ ধীরে ধীরে আরও দুর্বল হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ বা লঘুচাপ আকারে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের সুন্দরবন উপকূলের কাছ দিয়ে স্থলভাগে প্রবেশ করেছে। এর প্রভাবে খুলনা, বরিশাল, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের বেশ কিছু স্থানে বৃষ্টি হচ্ছে।

দেশের সমুদ্র বন্দরসমূহকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া কক্সবাজার ও টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনের পথে যাতায়াতকারী সব জাহাজ চলাচল রোববার সকাল থেকে বন্ধ রয়েছে।

এদিকে জাওয়াদের প্রভাবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া, কলকাতা, হুগলি, বীরভূম, বাঁকুড়া, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমানে ভারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে অতিভারি বৃষ্টি হতে পারে। বাংলাদেশ লাগোয়া উত্তর ২৪ পরগনা, নদিয়া ও মুর্শিদাবাদেও ভারি বৃষ্টি হচ্ছ।

কলকাতায় রোববার বিকাল থেকে সোমবার বিকাল পর্যন্ত বৃষ্টি হয়েছে ৬৮ মিলিমিটার। গত এক দশকে ডিসেম্বরে ২৪ ঘণ্টায় এত বৃষ্টি হয়নি। দেশটির আবহাওয়া অফিসের তথ্য অনুযায়ী, গত ১০ বছরে ডিসেম্বরে ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছিল ২০১২ সালের ১২ ডিসেম্বর, ৩৩.৪ মিমি।

শনিবারই শক্তি হারিয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছিল ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ। রোববার সকালে তা আরও শক্তিক্ষয় করে সাধারণ নিম্নচাপে পরিণত হয়।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top