নেত্রকোনায় গৃহবধূর আত্মহত্যা

image-423331-1621668796-1.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় হাওয়া (১৮) নামে এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার (২৯ নভেম্বর) রাতে পৌর শহরের ভাঙা ব্রিজ এলাকার বসত ঘর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত গৃহবধূ উপজেলার চন্ডিগড় ইউনিয়নের সাতাশী গ্রামের কৃষক ফজলুল করিমের মেয়ে। তিনি তার স্বামী হাসান মিয়ার সঙ্গে ভাঙা ব্রিজ এলাকায় থাকতেন।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সকালে দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহনুর এ আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন : করোনায় আরও ৫ হাজারের বেশি মৃত্যু

ওসি শাহনুর জানান, তিন মাস আগে হাসান মিয়ার সঙ্গে হাওয়ার বিয়ে হয়। সোমবার সকালে হাসান মিয়া ইট ভাটায় কাজে যান। এরপর হওয়া তার শ্বশুরের সঙ্গে নিজের বাপের বাড়ি যায়। সারাদিন সেখানে থেকে বিকেলে তারা বাড়ি ফেরেন। এরপর শ্বশুর তাকে বাসায় রেখে বাজারে চলে যান। কিছুক্ষণ পর পাশের বাসার মাহফুজা ডাল মিশ্রন করার গুডনি আনতে হাওয়ার কাছে যান। তিনি ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় গৃহবধূ হাওয়ার লাশ দেখতে পান। মাহফুজার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এসে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

তিনি আরো জানান, মারা যাওয়ার আগে হাওয়া একটি চিরকুট লিখে রেখে গেছেন। চিরকুটে তিনি নিজের মৃত্যুর জন্য কাউকে দায়ী করেননি।  ওসি শাহনুর আলম জানান, গৃহবধূ হওয়ার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মঙ্গলবার সকালে নেত্রকোনা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top