বেসরকারি বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্ত কাল!

130622_bangladesh_pratidin_bus.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : বেসরকারি মালিকানাধীন বাস-মিনিবাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার বিষয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বেসরকারি মালিকানাধীন বাস-মিনিবাসে চলাচলে শিক্ষার্থীদের কনসেশন (সুবিধা) দেওয়ার বিষয়টি আলোচনার জন্য আগামীকাল শনিবার (২৭ নভেম্বর) বিআরটিএ’তে পরিবহন মালিক এবং শ্রমিক ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হবে।’

আগামীকাল এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে তিনি আশা করে বলেন, ‘সামাজিক দায়বদ্ধতা এবং শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি সংবেদনশীল থেকে পরিবহন মালিকরা ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেবেন।’

শুক্রবার সকালে তার বাসভবনে ব্রিফিংকালে এ কথা বলেন তিনি।

সেইসঙ্গে মন্ত্রী জানান, দাবির পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে বিআরটিসি বাসের ভাড়া শিক্ষার্থীদের জন্য শতকরা ৫০ ভাগ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনা সরকার জনগণের সরকার, জনঘনিষ্ট এবং যৌক্তিক কোনো দাবিতে তিনি সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন।’

আরও পড়ুন : টঙ্গীতে পানির জন্য হাহাকার, ৮ দিনেও ঠিক হয়নি বৈদ্যুতিক ট্রান্সমিটার

আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হওয়ার পর শিক্ষার্থীরা হাফ ভাড়ায় বিআরটিসি বাসে যাতায়াত করতে পারবে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ভ্রমণকালে ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্তৃক ইস্যুকৃত ছবিযুক্ত বৈধ পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে এবং প্রয়োজনে প্রদর্শন করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘সকাল ৭টা হতে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা বিআরটিসি বাসে চলাচলের ক্ষেত্রে এ কনসেশন (সুবিধা) পাবে।’

তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের দিনে এ কনসেশন প্রযোজ্য হবে না উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘শিগগিরই এ বিষয়ে বিআরটিসি প্রজ্ঞাপন জারি করবে।’

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) অডিটোরিয়ামে সচিবদের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। কাল জানানো হয় এ বিষয়ে শিগগিরই ঘোষণা দেবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আরও পড়ুন : ফেসবুকের পোস্ট নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়াল গ্রামবাসী, আহত ৪০

তখন সূচনা বক্তব্যে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব নজরুল ইসলাম বলেন, শিক্ষার্থীরা বাসে হাফ ভাড়া নেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছে। তাদের এই দাবিটি আমরা ইতিবাচকভাবে নিচ্ছি।

সচিব নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বৈঠকে জননিরাপত্তা বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব, কারিগরি ‍ও মাদরাসা বিভাগের সচিব এবং পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) অংশ নেন। পরিবহন মালিক সমিতি ও শ্রমিক ফেডারেশনের প্রতিনিধিরাও এতে ছিলেন।

বৈঠকে সবার আলোচনা ও মতামতের ভিত্তিতে বিআরটিসি বাস ভাড়ায় শিক্ষার্থীদের ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। তবে সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির শীর্ষ নেতারা না থাকায় তাদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি। মধ্যম সারির নেতারা থাকলেও তারা সিদ্ধান্ত দিতে পারেননি। মালিক সমিতির সঙ্গে বৈঠক করে সেটি ঠিক করবে বিআরটিএ।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top