বিজয় দিবসে হচ্ছে না ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ

download-2-29.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির হকির আসর বসছে ঢাকায়। এই আসরে ১৬ ডিসেম্বর মওলানা ভাসানী জাতীয় স্টেডিয়ামে ছিল ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচ। বাংলাদেশের বিজয় দিবসের দিনে পাকিস্তানের ম্যাচ থাকায় সামাজিক ও নানা অঙ্গনে আলোচনা হয়।

বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন এশিয়ান হকি ফেডারেশনের সঙ্গে বিজয় দিবসের দিন পাক-ভারত ম্যাচ না দেয়ার অনুরোধ জানায়।  এশিয়ান হকি ফেডারেশন বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের অনুরোধ বিবেচনা করেছে।

বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইউসুফ বলেন, ‘১৬ ডিসেম্বর ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হচ্ছে না৷ এশিয়ান হকি ফেডারেশন আমাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ১৬ তারিখের ম্যাচগুলো ১৭ তারিখে বডিলি শিফট করা হয়েছে।’

আরও পড়ুন : আধা ঘণ্টা দাঁড়িয়েও কপিলের শোতে ঢুকতে পারলেন না স্মৃতি ইরানি

এশিয়ান হকি ফেডারেশন চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সুচি প্রকাশের পর সমালোচনার ঝড় উঠে। বাংলাদেশের বিজয় দিবসের দিন কেন পাকিস্তানের ম্যাচ ঢাকার মাটিতে এ নিয়ে অনেক বিশিষ্ট নাগরিক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনকে ১৬ ডিসেম্বরের ম্যাচ নিয়ে এশিয়ান হকি ফেডারেশনের সঙ্গে আলেচনা করতে বলেছিল।

এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে স্বাগতিক বাংলাদেশ ছাড়া অংশ নিচ্ছে ভারত, পাকিস্তান, মালয়েশিয়া, কোরিয়া। ১৪ ডিসেম্বর বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ মালয়েশিয়ার বিপক্ষে। পরের দিন জিমিদের ম্যাচ ভারতের বিপক্ষে। বিজয় দিবসের দিন বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল দক্ষিণ কোরিয়া। ওই দিনের খেলা বডিলি শিফট হয়ে এখন ১৭ ডিসেম্বর। ১৮ ডিসেম্বর জাপান এবং ১৯ ডিসেম্বর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ জিমিদের। টুর্নামেন্টের ফাইনাল ২২ ডিসেম্বর।

২৭ নভেম্বর প্রিমিয়ার হকি লিগ শেষ হবে। এরপরই জাতীয় হকি দলের ক্যাম্প শুরু হবে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে হকি দলের কোচ করা হয়েছে মালয়েশিয়ান গোবীনাথান কৃষ্ণমুর্তিকে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top