লিবিয়ায় নির্বাচনের আগমুহূর্তে গাদ্দাফির ছেলের প্রার্থিতা বাতিল

libya-10-20211125135525.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট :  আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে লিবিয়ার প্রয়াত স্বৈরশাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাইফ আল-ইসলাম গাদ্দাফির প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। বুধবার (২৪ নভেম্বর) দেশটির নির্বাচন কমিশন এই সিদ্ধান্তের কথা জানায়। আগামী ডিসেম্বরে উত্তর আফ্রিকার এই দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে এবং ওই নির্বাচনে গাদ্দাফির ছেলেকে শক্তিশালী প্রার্থী হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স। এর ফলে লিবিয়ার আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে উত্তেজনা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।

আরও পড়ুন : দিল্লি আঞ্চলিক নিরাপত্তা বৈঠকে উঠে এলো আফগানিস্তানের বিকল্প ভবিষ্যৎ

রয়টার্স বলছে, আগামী ডিসেম্বর মাসে অনুষ্ঠিতব্য লিবিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ৯৮ জন লিবীয় নাগরিক নিবন্ধন করেছিলেন। এর মধ্যে সাবেক স্বৈরশাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাইফ আল-ইসলাম গাদ্দাফিসহ ২৫ জনের প্রার্থিতা বাতিল করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন।

অবশ্য প্রার্থিতা বাতিলের বিষয়ে লিবীয় নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন সংশ্লিষ্টরা। পরে তাদের আবেদনের বিষয়ে চূড়ান্তভাবে সিদ্ধান্ত নেবে দেশটির বিচার বিভাগ।

লিবিয়ার নির্বাচন কমিশনের দাবি, সাইফ আল-ইসলাম গাদ্দাফি আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। কারণ তিনি আদালতে দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি। ২০১১ সালে মুয়াম্মার গাদ্দাফির বিরুদ্ধে আন্দোলনের সময় সাইফ আল-ইসলাম গণহত্যা চালিয়েছেন বলে অভিযুক্ত করে ২০১৫ সালে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয় দেশটির রাজধানী ত্রিপোলীর একটি আদালত।

সাইফ আল-ইসলাম গাদ্দাফি ছাড়াও লিবিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী আলী জেইদান এবং সাবেক আইনপ্রণেতা নৌরি আবুশাহমাইনের প্রার্থিতাও বাতিল করেছে দেশটির নির্বাচনী কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top