হীন উদ্দেশ্যে বিএনপি নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে চায়

1669279512.hasan-mahmud.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : হীন উদ্দেশ্যে বিএনপি ১০ ডিসেম্বর নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে চায়। এমন মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।তিনি বলেছেন, হীন উদ্দেশ্যে বিএনপি ১০ ডিসেম্বর নয়াপল্টনে তাদের অফিসের সামনে সমাবেশ করতে চায়। বড় সমাবেশ কখনো রাস্তায় হয় না। রাস্তায় সমাবেশ করা অনুচিত। এতে জনগণের দুর্ভোগ হয়।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়ক গুয়েন লুইসের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, নয়াপল্টনের সামনে ৩০ থেকে ৩৫ হাজার মানুষ ধরে। পুরো এক কিলোমিটার ধরেও যদি মানুষ হয় তাও ৫০ হাজারের বেশি হবে না। সেখানে তারা সমাবেশ করতে চায়। এর মানে তারাও জানে কত লোক সমাবেশে হতে পারে।  তিনি বলেন, সমাবেশে লোকসংখ্যা ৩০ থেকে ৫০ হাজারের বেশি যে হবে না, সেটা আগে থেকেই তারা (বিএনপি) জানে। কোন অবস্থাতেই একটি ব্যস্ত রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ করা উচিত নয়।

তিনি আরও বলেন, নয়াপল্টনে সমাবেশ করার ওপর জোর দেওয়ার মাধ্যমে তারা এটিই প্রমাণ করছে-  প্রথমত তারা শঙ্কিত, সেখানে লোক হবে না। দ্বিতীয়ত রাস্তায় সমাবেশ করলে গন্ডগোল করতে সুবিধা হয়। এই দুই উদ্দেশ্যেই তারা সেখানে সমাবেশ করতে চায়।  তথ্যমন্ত্রী বলেন, সরকার গন্ডগোল করার অনুমতি কাউকে দিতে পারে না। প্রশাসন কাউকে গন্ডগোল করার অনুমতি দিতে পারে না। সমাবেশের অনুমতি দিতে পারে, কিন্তু গন্ডগোল করার উদ্দেশ্যে সমাবেশের অনুমতি দিতে পারে না।

আরও পড়ুন : জাতীয় সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের আহ্বান অলির

জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধির সঙ্গে সাক্ষাৎ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সৌজন্য সাক্ষাতের জন্য এসেছিলেন। পাশাপাশি ১১ ডিসেম্বর জাতিসংঘ ও সুইস দূতাবাসের যৌথ উদ্যোগে মানবাধিকার সংরক্ষণে সাংবাদিকদের ভূমিকা শীর্ষক একটি অনুষ্ঠানে আমাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য এসেছিলেন। আমরা পরিবেশ সংরক্ষণ বিষয়ে আলোচনা করেছি। আমি বিএনপির মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টিও বলেছি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top