বাগেরহাটে শিক্ষার্থীদের দিয়ে ইট তোলানো সেই প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত

01-183648.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রবর্তন । প্রকাশিতঃ ১৬:৫৩, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

বাগেরহাটের শরণখোলায় শিক্ষার্থীদের দিয়ে ইট তোলানোয় বকুলতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নাছির উদ্দিন মুক্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. কবির উদ্দিন ওই শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করেন।

তিনি বলেন, অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক নাছির উদ্দিন মুক্তা দায়িত্ব অবহেলা করে শিক্ষার্থীদের ভবনের তিন তলায় ইট তোলার নির্দেশ দেন। ইট তুলতে গিয়ে ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী মারুফের হাত ভেঙে যায়। এ ঘটনায় অভিভাবক ও এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ ও অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে। পরে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার তদন্ত প্রতিবেদনে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় ওই শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সোমবার (১১ নভেম্বর) সকাল ১১টায় প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে শরণখোলা উপজেলার ৫২নং বকুল তলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম আশ্রয়কেন্দ্রে ভবনের তিন তলার ছাদে ইট ওঠানোর সময় শিক্ষার্থী মারুফের হাত ভেঙ্গে যায়। পরে বাগেরহাট জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদের নির্দেশে সরেজমিন পরিদর্শন করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওই শিক্ষার্থীর উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

উপজেলা পরিষদ থেকে ওই শিক্ষার্থীর পরিবারকে ১০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। আহত মারুফ বর্তমানে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধী।

বিতর্কিত ওই শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করায় এবং মারুফের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করায় জেলা প্রশাসনকে সাধুবাদ জানিয়েছেন শিক্ষার্থীর মা মাসুরা বেগমসহ এলাকাবাসী।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top