খুলনায় টেক্সটাইল মিলের শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা

india-20200610173225.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক: খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার চন্দনী মহলে মো. রাজন (১৮) নামের এক মিল শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা করেছে সহকর্মীরা।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এর আগে সকালে উপজেলার চন্দনী মহলের বেড়িবাঁধ এলাকায় রাজনের দুই সহকর্মী তাকে পিটিয়ে আহত করেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, উপজেলার দেয়াড়াস্থ ব্যক্তি মালিকানাধীন জুট টেক্সটাইল মিলসের শ্রমিক চন্দনী মহল গ্রামের ইউসুব আলীর ছেলে রাজন ও একই গ্রামের মিল শ্রমিক দুই ভাই আব্দুর রহিম ও আব্দুর রহমানের সাথে মিলের মহিলা শ্রমিকদের উত্ত্যক্ত করাকে কেন্দ্র করে বুধবার রাতে মিলে ডিউটিরত অবস্থায় কথা কাটাকাটি হয়। যা মিলের ভিতরেই সমাধান করে দেওয়া হয়। রাতের ডিউটি শেষে সকালে তারা ট্রলারে চন্দনী মহল বেড়িবাঁধ ঘাটে নামেন। রাতের ঘটনার জের ধরে রহিম ও রহমান দুজনে মিলে চন্দনী রড মিলের কাছে রাজনকে লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকেন। এক পর্যায়ে মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। সাথে সাথে স্থানীয় লোকজন রাজনকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে । রাজনকে উদ্ধার করতে আসায় মেহেদী নামের এক যুবকও লাঠি পেটার শিকার হয়ে দিঘলিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দিঘলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসানউল্লাহ চৌধুরী বলেন, রাজনের সহকর্মী আব্দুর রহিম ও আব্দুর রহমান তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে রাজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মরদেহ খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। এঘটনায় রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত কেউ আটক বা মামলা হয়নি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: নিরাপত্তা সতর্কতা!!!