শিশু হত্যা : আসামি জাহাঙ্গীরের ফাঁসি কার্যকরে বাধা নেই

high-court3-20190103205639.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : নোয়াখালীর সুধারামপুরে শিশু হত্যার দায়ে আসামি মো. জাহাঙ্গীরের মৃত্যুদণ্ড সাজার রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) চেয়ে করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ। ফলে আসামির মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ রিভিউ আবেদনটি খারিজ করে দেন।

রায়ের সময় প্রধান বিচারপতি বলেন, নির্দোষ একটা শিশুকে হত্যা করা হলো। যার কোনো অপরাধ নাই, কিচ্ছু নাই। একটা বাচ্চাকে মেরে ফেললেন। মামলার মেরিটে আমরা সন্তোষ নয়। তাছাড়া মামলায় আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি আছে। শিশুটির বয়স মাত্র নয় বছর। এ বাচ্চা তো অপরাধ করার গণ্ডির মধ্যেই যায়নি। পরে আদালত রিভিউ আবেদন খারিজ করে মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে আদেশ দেন।

আদালতে আসামি জাহাঙ্গীরের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী জয়নুল আবেদীন, তার সঙ্গে ছিলেন এবিএম বায়েজীদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

গত ৮ জুলাই সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ শিশু আরাফাত হোসেনকে হত্যার মামলায় আসামি মো. জাহাঙ্গীরের আপিল ডিসমিস করে মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রাখেন। পরে গত ১০ অক্টোবর রিভিউ আবেদন করেন আসামিপক্ষের আইনজীবী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নোয়াখালীর সুধারাম উপজেলার গোপীনাথপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. জাহাঙ্গীর ৯ বছর বয়সী শিশু আরাফাত হোসেনকে ২০০৩ সালের ১৩ মার্চ তার বাড়ি থেকে খেলনা পিস্তল দেখিয়ে স্থানীয় কবরস্থানে নিয়ে হত্যা করেন। এ ঘটনায় করা মামলায় বিচারিক আদালত ২০০৮ সালে আসামির মৃত্যুদণ্ড দিয়ে রায় দেন। এরপর হাইকোর্টও সেই মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখেন। সর্বশেষ আপিল বিভাগেও মৃত্যুদণ্ডের রায় বহাল থাকে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top