রাওয়ালপিন্ডিতে যে কারণে এক কাপ চা এখন ৪০ রুপি

image-475966-1634194747-1.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট :  রাওয়ালপিন্ডিতে এখন এক কাপ চায়ের দাম ৪০ রুপি! নিরুপায় হয়ে চা-কফি খাওয়া কমিয়ে দিয়েছেন অনেকেই। রাগ-ক্ষোভে কেউ কেউ আবার ছেড়েই দিচ্ছেন একেবারে।

সাম্প্রতিক সময়ে মুদ্রাস্ফীতির চরমপর্যায়ে পৌঁছেছে পাকিস্তান। চিনি-গ্যাস, চাপাতা-সবকিছুর দামই লাগামছাড়া। ফলে বেশি দরে কিনে আগের দামে আর চা বিক্রি করা যাচ্ছে না। বাধ্য হয়েই চা-কফির দাম বাড়িয়েছেন বিক্রেতারা।

দেশটির চতুর্থ বৃহত্তম শহর রাওয়ালপিন্ডিতে কিছু ক্যাফেটেরিয়া ও রেস্তোরাঁয় এক কাপ চায়ের দাম ৩০ থেকে বাড়িয়ে ৪০ রুপি করা হয়েছে। খবর ডনের।

কিয়স্ক এলাকার এক চা-বিক্রেতা জানান, চা-বিক্রেতাদের চায়ের দামবৃদ্ধির এ সিদ্ধান্ত যৌক্তিক। কারণ, সব কিছুর দাম যেভাবে বাড়ছে, এর সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখতে হলে চায়ের দাম বাড়াতেই হতো।

তার দাবি, প্রতি লিটার দুধের দাম ১০৫ থেকে বেড়ে ১২০ রুপি হয়েছে। খোলা চা–পাতার দাম কেজিতে ১০০ বেড়ে হয়েছে ৯০০ রুপি। গ্যাস সিলিন্ডারের দাম দ্বিগুণ হয়েছে। এক সিলিন্ডার তরলীকৃত গ্যাস ১ হাজার ৫০০ রুপিতে পাওয়া গেলেও এখন তা ৩ হাজার রুপি।

ওই চা–বিক্রেতা বলেন, ‘আমাদের আয়–উপার্জন আগের চেয়ে অনেক কমেছে। এ কারণে চায়ের দাম বাড়ানো ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না।’

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top