সকল উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা হলো বিএনপি

21552645124545.jpg

আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও এদের দোসররা শারদীয় দুর্গাপূজার সময় দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের পাঁয়তারা চালাচ্ছে। বাংলাদেশের সকল উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা হলো বিএনপি। তাদের পৃষ্ঠপোষকতায় এই সাম্প্রদায়িক শক্তি দুঃসাহস দেখাচ্ছে, মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলে পূজামন্ডপ পরিদর্শনে এসে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান, জগন্নাথ হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মিহির লাল সাহা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জগন্নাথ হলে এসে পুরনো স্মৃতি মনে পড়ছে। অনেক আন্দোলন সংগ্রামের স্মৃতি বিজড়িত স্থান এই জগন্নাথ হল। এখানে জমজমাট উৎসবমুখর পরিবেশ দেখে ভালো লাগছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সকলকে শারদীয় শুভেচ্ছা জানাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘গত বারো বছরে শেখ হাসিনা সরকারের সময়ে দেশে কখনও কোনো সহিংসতা ও শান্তি বিনষ্ট হয়নি। অথচ এবার কুমিল্লাসহ বেশকয়েকটি জায়গায় দুঃখজনক ও নিন্দনীয় কতগুলো ঘটনা ঘটে গেছে। এই ঘটনার তদন্ত চলছে, ঘটনায় জড়িতদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এসব অপশক্তির বিরুদ্ধে সরকার ও আওয়ামী লীগের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর। কাল বিজয়া দশমী বিসর্জনের দিনে ষড়যন্ত্র হতে পারে। কাজেই সরকারের পাশাপাশি নেতাকর্মীদেরকেও সতর্ক পাহারায় থাকতে হবে। কারণ এই সাম্প্রদায়িক পৃষ্ঠপোষক বিএনপি নির্বাচনকে সামনে রেখে আন্দোলনে হেরে ষড়যন্ত্রের চোরাগলি বেছে নিয়েছে। তারা বাংলাদেশকে ভীতি রাষ্ট্র করতে চায়। শান্তি বিনষ্ট করতে চায়।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আপনারা সতর্ক থাকবেন। ক্যাম্পাসে শান্তি বিনষ্টকারীরা সোচ্চার রয়েছে। এই বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে কাউকে বিশৃঙ্খলা করতে দেয়া হবে না। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে প্রস্তুত থাকার আহবান জানাচ্ছি। বিপদসংকুল দায়িত্ব আপনাদের ওপর অর্পিত হয়েছে। এই দায়িত্ব দায়িত্বশীলতার সঙ্গে পালন করতে হবে। কোনো অবস্থায় মাথা গরম করা যাবে না। ঠান্ডা মাথায় পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হবে। আমরা কাউকে আক্রমণ করবো না। কিন্তু কেউ আক্রান্ত হলে আমরা পাল্টা জবাব দেবো।’

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top