দেশে খালেদা জিয়ার পূর্ণাঙ্গ চিকিৎসা সম্ভব নয়: ফখরুল

image-234039-2.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : শারীরিক চেকআপের জন্য হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিএনপির এ নেতা বলছেন, চিকিৎসকরা জানিয়েছেন খালেদা জিয়ার পূর্ণাঙ্গ চিকিৎসা দেশে সম্ভব না।

বুধবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি ডিআরইউতে এক অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

উন্নত চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে দেশের বাইরে নেওয়ার দাবি জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সনের এখন যে শারীরিক অবস্থা, সেটা চিকিৎসা এদেশের সম্ভব নয়।

ফখরুল বলেন, তিনি কয়েকদিন ধরে হালকা জ্বর অনুভব করছেন। এছাড়া শরীরের বিভিন্ন সমস্যায়ও ভুগছেন। তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্যই তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। চিকিৎসকরা বলেছেন, তার নানাবিধ শারীরিক জটিলতা রয়েছে। যেগুলো একসঙ্গে চিকিৎসা করানো বাংলাদেশে সম্ভব না৷

তিনি বলেন, এখানে মাল্টি চিকিৎসা নেই। দেশের বাইরে নিতে হবে।

খালেদা জিয়ার জামিন না হওয়ায় আক্ষেপ করে ফখরুল বলেন, সরকার কেন তাকে তার ন্যায্য জামিন দিচ্ছেন না। অবিলম্বে তার জামিনের ব্যবস্থা করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান ফখরুল।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বেগম জিয়াকে বাঁচাতে ও রক্ষা করতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করে সরকার হঠাতে হবে৷

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ই-কমার্সের দুর্নীতি এবং লুটপাটের সঙ্গে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের লোকজন জড়িত। তাদের পৃষ্ঠপোষকতায় এই ধরনের প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। এগুলো করে তারা দেশের জনগণের পকেট শূন্য করে দিয়েছে। প্রতিটি ব্যাংকসহ আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করে দিয়েছে সরকার।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, বিএনপি রঙিন স্বপ্ন দেখছে না, দুঃস্বপ্ন দেখছে আওয়ামী লীগ।

তিনি বলেন, দেশের শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। কেউ নিরাপদ নয়। কারো জীবন নিরাপদ নয়। হত্যা গুম সবকিছু ছড়িয়ে পড়েছে। আজ দেশে একটি ভয়াবহ দুঃসময় পার করছে, যা স্বাধীনতার ৫০বছরের ইতিহাসে হয়নি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top