গাড়ির চাকা ফেটে বৃদ্ধা নিহত, বর-কনেসহ আহত ৩

555-2110130910.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : বরের গাড়ির পেছনের চাকা ফেটে কনের দাদি মোহসেনা বেগম (৬৫) নিহত হয়েছেন। এসময় ওই গাড়িতে থাকা বর-কনেসহ চারজন আহত হয়েছেন।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) ভোরে নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ উপজেলার রংপুর সড়কের বড়ভিটা বাজার এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটেছে।

কিশোরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আউয়াল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত মোহসেনা বেগম জেলার জলঢাকা উপজেলার নেকবক্ত কুঠিপাড়া গ্রামের সামসুল হকের স্ত্রী। আহতদের কিশোরীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসি আব্দুল আউয়াল জানান, মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে কিশোরীগঞ্জ উপজেলার কেশবা গ্রামের বুদা মাহমুদের ছেলে আলিমুল হক (২৩) বরযাত্রীসহ বিয়ে করতে যান পার্শ্ববতী জলঢাকা উপজেলার নেকবক্ত কুঠিপাড়া গ্রামে। সেখানে সোহরাব হোসেনের মেয়ে আফিয়া বেগমের (১৯) সঙ্গে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে আজ বুধবার ভোরে কনেকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। এসময় একটি প্রাইভেটকারে বর-কনে ও কনের দাদি মোহসেনা বেগম (৬৫) ও নানি জোবেদা বেগম (৬৭) দানি বুড়ি হিসেবে কনের সঙ্গে নাতি জামাইয়ের বাড়ি আসছিলেন। পথে জলঢাকা-কিশোরীগঞ্জ রংপুর সড়কের বড়ভিটা বাজার এলাকায় পৌঁছালে তাদের বহনকারী প্রাইভেটকারটির পেছনের ডান দিকের চাকা ফেটে গাড়িটি রাস্তার ধারে উল্টে যায়। অন্য গাড়ির বরযাত্রীরা দ্রুত তাদের উদ্ধার করে কিশোরীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে কনের দাদী মোহসেনা বেগমের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত বর-কনে ও কনের নানিসহ চারজন চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ওসি আব্দুল আউয়াল জানান, প্রাইভেট কারটি জব্দ করা হয়েছে। ঘটনার সময় চালক নাঈম (২৫) পালিয়ে যান। পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহটি স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top