রামপুরায় তরুণীর মৃত্যু, রহস্য একটি ফোন কল ঘিরে

deadbody-20211007155814.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট :  রাজধানীর রামপুরার তিতাস রোড এলাকায় ইসরাত জাহান কুমকুম (২৪) নামে এক তরুণীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ৩টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে কুমকুমকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। এরপর তার মরদেহ ময়ানাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রামপুরা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) তওফিকা ইয়াসমিন ঢাকা পোস্টকে বলেন, কুমকুমের মৃত্যুটা রহস্যজনক। রাতে খাবার খেয়ে নিজের রুমে চলে যায় সে। রাতে তার প্রেমিক, রহিম নামে একজন কুমকুমের ছোট খালাকে ফোন করে বলেন কুমকুম কোনো সমস্যায় আছে। এরপর তার খালু কুমকুমদের বাসায় এসে তার দরজায় বারবার নক করলেও দরজা খোলে না। পরে দরজা ভেঙে দেখে ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলছে। পরে তারা কুমকুমকে নামিয়ে পুলিশকে খবর দেয়। কিন্তু পুলিশে খবর দেওয়ার আগে তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া উচিত ছিল। পরে পুলিশ এসে তাকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠালে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কুমকুমের খালার কাছে ফোন আসা ও অন্যান্য বিষয় সম্পর্কে কুমকুমদের বাড়িতে গিয়ে জানতে পারে পুলিশ।

তওফিকা ইয়াসমিন আরও বলেন, তার পরিবার আমাদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করছে না। তারা বলছে রহিম নামে কাউকে তারা চেনে না। তাহলে সে কিভাবে কুমকুমের খালার নম্বর পেল এবং কিভাবে জানল যে কুমকুম সমস্যায় আছে। আমরা তার মোবাইল ফোন জব্দ করেছি। তার মোবাইলের সিডিআর এনে খতিয়ে দেখা হবে। ওই ছেলের ব্যাপারেও আমরা খোঁজ-খবর নিচ্ছি। পরিবারের সবাইকে আবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এসআই তওফিকা আরও জানান, কিছুদিন আগে কুমকুমের মা মারা গেছেন, বাবাও অসুস্থ। ইডেন কলেজ থেকে সে অনার্স পাস করেছে। সোনালী ইন্সুরেন্স নামে একটি বিমা কোম্পানিতে চাকরি করতেন তিনি।

ঘটনার বিষয়ে জানতে কুমকুমের মামা ও ভাইয়ের সাথে কথা বলার চেষ্টা করে তাদের কাছ থেকে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top