প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ছেলেকে হত্যা করেন বাবা

image-468686-1632472465.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : ১১ মাস পর গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার পদ্মাকান্দা গ্রামের জলাবদ্ধ জমি থেকে উদ্ধার হাত-পা বাঁধা অর্ধগলিত লাশের পরিচয় শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে লাশটি মেহেদী মাতুব্বরের (১৭) বলে তারা নিশ্চিত হয়েছেন।

হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গত বুধবার নিহতের বাবা আরব আলী মাতুব্বরকে (৪০) গ্রেফতার করা হয়।

সিআইডি জানিয়েছে, জিজ্ঞসাবাদে আরব আলী হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন,  প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিজের ছেলেকে ঢাকা থেকে ফোন করে বাড়িতে ডেকে এনে নিজেই তার হাত-পা রশি দিয়ে বেঁধে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করেন।

প্রসঙ্গত ২০২০ সালের ১১ অক্টোবর সকাল ৯টার দিকে গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার পদ্মকান্দা গ্রামের জলাবদ্ধ জমি থেকে সিন্ধিয়াঘাট ফাঁড়ির পুলিশ মেহেদী মাতুব্বরের হাত-পা বাঁধা অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে। ওই দিন পুলিশ বাদী হয়ে মুকসুদপুর থানায় একটি হত্যা মামলা (নং-১০) রুজু করে। পরে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের নির্দেশে সিআইডি মামলাটির তদন্ত নেয়।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top