চিতলমারীর চিত্রা নদী থেকে অবৈধ পাটা ও ভেসাল জাল অপসারণ

CHITALMARI-NEWS-17.09.2019-2.jpg

চিতলমারী প্রতিনিধি, প্রবর্তন | প্রকাশিতঃ ১৮:৩৪, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বাগেরহাটের চিতলমারীর মরা চিত্রা নদীসহ বেশ কয়েকটি খাল থেকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অবৈধ পাটা ও ভেসাল জাল অপসারণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মারুফুল আলম অভিযান চালিয়ে প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকার খাল ও বিল থেকে প্রায় অর্ধশতাধিক ভেসাল জাল ও বাঁশের পাটা অপসারণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সোহেল মোঃ জিল্লুর রহমান রিগান, হিজলা ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আজমীর আলী ও সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী তৌশিলদার মোঃ আলমগীর হোসেন।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে এ উপজেলায় ৩ টি নদী ও প্রায় ৫০ টি খালে বর্ষা মৌসুমের শুরুতে কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি বাঁশের পাটা ও ভেসাল জাল দিয়ে অবৈধ ভাবে মাছ শিকার করে আসছে। এতে নদীতে ঠিকমত পানি ওঠানামা করতে না পারায় সামান্য বৃষ্টি ও জোয়ারের পানিতে চিংড়ি ঘের তলিয়ে যাওয়ার সম্ভবনা দেখা দেয়।

চিতলমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মারুফুল আলাম প্রবর্তনকে বলেন, সাত ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার সরকারি জলাশয় থেকে নেট-পাটাসহ বিভিন্ন উপকরণ তুলে নেওয়ার জন্য ইতোপূর্বে একাধিক বার মাইকিং করা হলেও তা অপসারণ হয়নি। ফলে বাধ্য হয়ে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, নদী ও খাল দখল করে যারা অবৈধ স্থাপনা নির্মান করেছেন তাদের স্থাপনাও শিগ্রই উচ্ছেদ করা হবে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top