চীনকে ঠেকাতে সামরিক খাতে ৯ বিলিয়ন ডলার খরচ করবে তাইওয়ান

image-275782-1631770454.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট  : চীনের হুমকি মোকাবেলা করতে প্রতিরক্ষা খাতে খরচ বাড়াচ্ছে তাইওয়ান। অস্ত্রশস্ত্রের উন্নয়ন ঘটাতে আগামী পাঁচ বছরে প্রায় নয় বিলিয়ন ডলার খরচ করবে দেশটি। বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এখবর দিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ​​ইং-ওয়েন সশস্ত্র বাহিনীকে আধুনিকায়ন করেছেন। তবুও চীনের তুলনায় এই বাহিনী বামন বলা যায়। এখন প্রতিরক্ষা ব্যয় বৃদ্ধিকে অগ্রাধিকার দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট সাই।

আরও পড়ুন:
ট্রেন থেকে নিক্ষেপযোগ্য মিসাইলের পরীক্ষা চালালো উত্তর কোরিয়া

সাপ্তাহিক মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, চীনা কমিউনিস্টরা জাতীয় প্রতিরক্ষা বাজেটে ব্যাপক বিনিয়োগ অব্যাহত রেখেছে। তাদের সামরিক শক্তি দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে। তারা আমাদের সমুদ্র এবং আকাশসীমায় আক্রমণ ও হয়রানির জন্য প্রায়ই বিমান ও জাহাজ প্রেরণ করেছে।

উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়াং শিন-লাং বলেন, তাইওয়ানের নিজস্ব উৎপাদন ক্ষমতা বাড়ায় নতুন অস্ত্রগুলি দেশীয়ভাবে তৈরি করা হবে। যদিও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সম্ভবত প্রযুক্তি সরবরাহকারী হিসেবে থাকবে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top