মমতার বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের অভিযোগ বিজেপির

ডেস্ক রিপোর্ট : ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে নির্বাচনি হলফনামায় তথ্য গোপনের অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। তাদের দাবি পাঁচটি মামলার বিষয়ে হলফনামায় কোনো তথ্য দেননি মমতা। গতকাল মঙ্গলবার মমতার বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের অভিযোগ তুলে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দিয়েছেন ভবানীপুরের বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াংকা টিবরেওয়ালের প্রধান নির্বাচনি এজেন্ট সজল ঘোষ। তার দাবি, পাঁচটি মামলার বিষয়ে হলফনামায় কোনো তথ্য দেননি মমতা।

আসামে এসব মামলা রুজু হয়েছিল। তবে বিষয়টি নিয়ে তৃণমূল বা নির্বাচনের কমিশনের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি বলে জানানো হয়েছে। গত মার্চে নন্দীগ্রামে ভোটের আগেও একই দাবি করেছিল বিজেপি। নন্দীগ্রামের তত্কালীন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী দাবি করেছিলেন, ২০১৮ সালে মমতার বিরুদ্ধে আসামে পাঁচটি ফৌজদারি মামলা দায়ের হয়েছিল। সিবিআইয়ের কাছেও তার বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছিল একটি ফৌজদারি মামলা। কিন্তু মমতা যে হলফনামা জমা দিয়েছিলেন, তাতে সেই মামলাগুলোর বিষয়ে কোনো উল্লেখ নেই। যদিও সেই অভিযোগ গুরুত্ব পায়নি তখন।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুর বিধানসভা আসনের উপনির্বাচনের প্রচারণা জমে উঠেছে। এই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী আইনজীবী প্রিয়াংকা টিবরেওয়াল এবং বাম দল সিপিএমের শ্রীজীব বিশ্বাস। এই তিন প্রার্থীই এখন প্রচারণার মাঠে। জয়ের ব্যাপারে তিন প্রার্থীই আশাবাদী। তবে তৃণমূল আশা করছে, বিপুল ভোটে জিতবেন মমতা। তার প্রচারণায় নেমেছেন রাজ্যের তৃণমূল নেতা ও মন্ত্রীরা।

অন্যদিকে বিজেপিও মাঠে নেমেছে। দলটির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, ভবানীপুরে পুরো প্রস্তুতি নিয়ে নির্বাচনে লড়ছি। আর লড়ছি বলেই ঝাঁকে ঝাঁকে মন্ত্রীরা প্রচারণা চালাচ্ছে। অন্যদিকে বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াংকা টিবরেওয়াল গণমাধ্যমকে বলেন, মমতা ব্যানার্জির জয় সহজ হবে না। নন্দীগ্রামে তিনি হেরেছেন। এবার ভবানীপুরে হারলে অবাক হওয়ার কিছু নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top