নেতানিয়াহুর মামলার সাক্ষী বিমান দুর্ঘটনায় সস্ত্রীক নিহত

image-465410-1631698728.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : ইসরাইলের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর দুর্নীতির মামলার সাক্ষী হাইম গারোন ও তার স্ত্রী এসতি গারোন গ্রিসে এক বিমান দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন।

হাইম গারোন ইসরাইলের যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সাবেক কর্মকর্তা ছিলেন।  নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে চলমান তিনটি মামলার মধ্যে ঘুসগ্রহণের মামলায় প্রধান সাক্ষী ছিলেন তিনি। খবর আনাদোলুর।

ইসরাইলের গণমাধ্যম মঙ্গলবার হাইম গারোনের সস্ত্রীক বিমান দুর্ঘটনায় নিহতের খবর প্রকাশ করে।

এদিকে তিন মাস বন্ধ রাখার পর সোমবার থেকে জেরুজালেমের একটি আদালত নেতানিয়াহুর দুর্নীতির বিচার শুরু করেন। তার বিরুদ্ধে ঘুস, জালিয়াতি এবং বিশ্বাসভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে।

ইসরাইলের ইতিহাসে নেতানিয়াহুই হচ্ছেন প্রথম প্রধানমন্ত্রী, যার ফৌজদারি মামলায় বিচার হয়েছে।

তার বিরুদ্ধে আনা তিনটি মামলার প্রথমটিতে বলা হয়, তিনি ক্ষমতাধর ব্যবসায়ীদের সুবিধা দেওয়ার বিনিময়ে চুরুট ও শ্যাম্পেনের বোতলসহ নানা উপহার গ্রহণ করেছেন।

দ্বিতীয়টিতে বলা হয়, নেতানিয়াহু ইসরাইলি সংবাদপত্র ইয়েদিওত আহরোনটকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন যে, তার ব্যাপারে ইতিবাচক খবর ছাপালে তিনি পত্রিকাটির বিক্রি বাড়াতে সহায়তা করবেন।

তৃতীয় অভিযোগে বলা হয়, নেতানিয়াহু প্রধানমন্ত্রী এবং যোগাযোগমন্ত্রী থাকার সময় টেলিকম প্রতিষ্ঠান শাওল এলোভিচের সংবাদ ওয়েবসাইটে ইতিবাচক রিপোর্টের বিনিময়ে তিনি ওই প্রতিষ্ঠানের সুবিধা হয় এমন নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য কাজ করেছেন।

দক্ষিণপন্থি লিকুদ পার্টির নেতা নেতানিয়াহু হচ্ছেন ইসরাইলের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার প্রধানমন্ত্রী। তিনি ২০০৯ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত টানা ক্ষমতায় ছিলেন এবং এর আগে ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৯ পর্যন্ত আরেক দফা প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top