মেসিহীন বার্সাকে ফের লজ্জা দিল বায়ার্ন

image-465272-1631656922.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : বহু বছর পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মেসি ছাড়াই নামল বার্সেলোনা। প্রথম ম্যাচেই মুখোমুখি হলো জার্মানির শক্তিশালী দল বায়ার্ন মিউনিখের। আর গতবারের মতো এবারও এক রাশ হতাশাই উপহার দিল রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বার্সাকে ফের লজ্জা দিল বায়ার্ন।

ঘরের মাঠ কাম্প ন্যুয়ে মঙ্গলবার রাতে ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচে বার্সেলোনাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে বায়ার্ন। হতাশা কমাতে হয়তো অনেক বার্সা সমর্থকরা বলবেন, আর যাই হোক গতবারের মতো তো ৮ গোল হজম করিনি!

১১ মাস আগে লিসবনে বার্সেলোনাকে ৮-২ গোলে বিধ্বস্ত করেছিলে বায়ার্ন। দলের সেরা তারকা রবার্তো লেওয়ানডস্কির সামনে অসহায় হয়ে পড়েন মেসিরা দল।

আর এবার হয়তো সেই দুঃসহ স্মৃতির পুনরাবৃত্তি না করতে রক্ষণ জমাট করেই প্রথমার্ধ খেলেছে বার্সা। প্রথমার্ধে আক্রমণে বার্সেলোনা ছিল বিবর্ণ। গোল দেবে কি! গোলের উদ্দেশে একটি শট নিতে দেখা যায়নি তাদের।

উল্টোদিকে বায়ার্নের একের পর এক আক্রমণ প্রতিহত করতে দেখা গেছে তাদের। গোলমুখে মহাপ্রাচীর হয়ে দাঁড়িয়ে জাল সুরক্ষিত রেখেছেন গোলরক্ষক মার্ক আন্ড্রে টের স্টেগান। ১৯তম ও ২৭তম মিনিটে বায়ার্নের দুর্দান্ত দুটি আক্রমণ ঠেকাতে পারে বার্সা।

কিন্তু ৩৩তম মিনিটে আর জালকে সুরক্ষিত রাখতে পারেননি স্টেগান। ডি-বক্সের বাইরে থেকে টমাস মুলারের শট এরিক গার্সিয়ার গায়ে লেগে দিক পাল্টে বল জালে জড়ায়।

এক গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় বায়ার্ন। দ্বিতীয়ার্ধের চতুর্থ মিনিটে লক্ষ্যে প্রথম শট নেয় বার্সেলোনা। তবে সের্হিও বুসকেতসের শট পা বাড়িয়ে রুখে দেন মুলার।

এর তিন মিনিট পর দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়ে সানের শট পা বাড়িয়ে ঠেকান স্টেগান। কিন্তু ৫৬তম মিনিটে আর পারলেন না। ১৮ বছর বয়সি মুসিয়ালার বুলেট গতির শট পোস্টে লেগে ফিরলে ফিরতি শটে সহজেই বল জালে পাঠান লেওয়ানডস্কি।

২-০ গোলে এগিয়ে যায় বায়ার্ন। গোল শোধ করবে কি উল্টো ৮৫তম মিনিটে আরো একটি গোল হজম করে বার্সা।

সেই গোলটিও আসে লেওয়ানডস্কির পা থেকে। সের্গেই জিনাব্রির শট পোস্টে লেগে ফেরার পর বল ধরে এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে সোজা বল বার্সার জালে জড়িয়ে দেন পোলিশ তারকা।

রেফারির শেষ বাঁশিতে ৩-০ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সফরকারীরা।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top