ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর মায়ের মৃত্যু

boris-johnson-20210914153936.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট  : ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের মা শ্যারোলেট জনসন ওয়াল মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। বিবিসি জানিয়েছে, মঙ্গলবার পশ্চিম লন্ডনের সেন্ট ম্যারি হাসপাতালে প্রধামন্ত্রীর মায়ের মৃত্যু হয়। শান্তিপূর্ণভাবে হাসপাতালে হঠাৎ জনসনের মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে আরেক ব্রিটিশ দৈনিক দ্য টাইমস।

চিত্রশিল্পী মা শ্যারোলেট জনসন ওয়ালকে একবার পরিবারের ‘সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর’ সদস্য হিসেবে বর্ণনা করেছিলেন বরিসস জনসন। বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা কেইর স্টার্মারসহ প্রথম সারির রাজনীতিবিদরা মায়ের মৃত্যুতে বরিস জনসনের জন্য শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন।

শ্যারোলেট জনসন ওয়ালের বাবা ১৯৭০ এর দশকে ইউরোপের মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ছিলেন। ১৯৬৩ সালে তিনি স্ট্যানলি জনসনকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর স্নাতক ডিগ্রি সম্পন্ন করেন অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তার কলেজের প্রথম বিবহাহিত নারী হিসেবে জনসন ওয়াল স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

শ্যারোলেট জনসন ওয়াল ও স্ট্যানলি জনসন দম্পতির ১৯৭৯ সালে বিবাহবিচ্ছেদ হয়। তাদের চার সন্তান রয়েছে। তারা হলেন বরিস জনসন, সাংবাদিক রাশেল জনসন, সাবেক ব্রিটিশ মন্ত্রী জো জনসন ও পরিবেশবিদ লিও জনসন। জোয়ানা লুমলি ও জিলি কুপারের মতো অভেনেত্রীর পোট্রেইট একে পরিচিত পান জনসন ওয়াল।

১৯৮৮ সালে শ্যারোলেট জনসন আমেরিকান অধ্যাপক নিকোলাস ওয়ালকে বিয়ে করে নিউইয়র্কে চলে যান। নিকোলাস ওয়ালের মৃত্যুরপর ১৯৯৬ সালে আবার লন্ডনে ফিরে আসেন। চল্লিশ বছর বয়সে পারকিনসন নামে এক রোগে আক্রান্ত হন তিনি। তবে আঁকাআঁকি ছাড়েননি। আমৃত্যু তিনি তার আঁকাআঁকি চালিয়ে গেছেন।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top