খুলনায় ব্যাটারি চালিত রিকশা চালুর দাবীতে মেয়র বরাবর স্মারকলিপি 

-চালিত-রিকশা-1.jpg

ব্যাটারি চালিত রিকশা, ফাইল ছবি।

বিজ্ঞপ্তি: খুলনা সিটি কর্পোরেশ এলাকায় ব্যাটারি/বিদ্যুৎ চালিত রিকশা চলাচলে নীতিমালা প্রণয়ন ও লাইসেন্স প্রদানের দাবীতে আজ দুপুর ১টায় মেয়র বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে রিকশা, ব্যাটারি রিকশা-ভ্যান ও ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ, খুলনা মহানগর কমিটি।

মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের নির্দেশে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসনিক কর্মকর্তা।

এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের আহ্বায়ক আলমগীর হোসেন বাবু, সদস্য সচিব জনার্দন দত্ত নাণ্টু, সদস্য আব্দুল করিম, কোহিনুর আক্তার কণা, ইলিয়াস আকন, নাজমুল ইসলাম, মোঃ সাইফুল্লাহ, শেখ কবির, শেখ শহিদুল হক, আবু তালেব পলাশ, আব্দুর রশীদ, মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

স্মারকলিপি উল্লেখ করা হয় যে, জ্বালানি ও সময় সাশ্রয়ী, পরিবেশবান্ধব এবং প্যাডেল রিকশা চালনার অমানবিক কায়িক শ্রম-লাঘব হওয়ায় ব্যাটারি চালিত রিকশা দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বর্তমানে ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, বরিশাল, রংপুরসহ প্রত্যেক সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভা এলাকাসহ সারাদেশে ব্যাটারি-চালিত রিকশা চলছে এবং অনেক সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভা কর্তৃপক্ষ এ বাহণের লাইসেন্স দিয়ে রাজস্ব আয় করছে। কিন্তু খুলনা সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ ব্যাটারি-চালিত রিকশা আটক ও ব্যাটারি-মোটর খুলে রাখায় দরিদ্র শ্রমিকরা আর্থিকভাবে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

স্মারকলিপিতে আরও উল্লেখ করা হয়, ব্যাটরি-চালিত রিকশার ব্রেক পদ্ধতি ও কাঠামো আধুনিক করে, ইন্ডিকেটর লাইট ও ব্যাক গিয়ার লাগিয়ে এবং গতি নিয়ন্ত্রণ করে একে আরও পাবলিক ও নিরাপদ করা সম্ভব। সম্প্রতি বুয়েটের উপাচার্য ও মেকানিক্যাল বিভাগের শিক্ষকরাও এই বাহণ বন্ধ না করে, এর ডিজাইন পরিবর্তন করার পক্ষে মত দিয়েছেন। এতে শুধু গরীব রিকশা-চালকদেরই সুবিধা হবে তা নয়, দেশের ক্ষুদ্র ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্পেরও বিকাশ হবে। এসব বাহনে বিদ্যুৎ খরচও খুব কম। সারাদিন একটি রিকশা চললে মাত্র ১.৫/২ ইউনিট বিদ্যুৎ খরচ হয়। এতে পরিবহণ খরচ এক চতুর্থাংশে নেমে আসে।

স্মারকলিপিতে ব্যাটারি/বিদ্যুৎ চালিত রিকশা চলাচলে প্রয়োজনীয় নীতিমালা প্রণয়ন লাইসেন্স দেয়া, রিকশার উপযুক্ত ডিজাইন সিটি কর্পোরেশের পক্ষ থেকে প্রস্তাব করা এবং অফিস চলাকালীন (সকাল ৯টাÑবিকেল ৫টা) মহানগরীর খানজাহান আলী রোড ও লোয়ার যশোর রোডে চলাচলে নিয়ন্ত্রণ (ক্রসিং ছাড়া) করার দাবী জানানো হয়।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top