পিএইচডি করে দেশে আসা হলো না অর্পিতা রায়ের

image-464606-1631509913.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অর্পিতা রায়।

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টার দিকে নিউজিল্যান্ডের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৩০ বছর।  তিনি পিএইচডির জন্য নিউজিল্যান্ডে অবস্থান করছিলেন।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ১২ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরবর্তী সময়ে হাসপাতালে নেওয়া হলে অবস্থার অবনতি হয়। আইসিউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নোবিপ্রবির মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. ফিরোজ আহমেদ বলেন, অর্পিতা রায় আজ (১২ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টার দিকে না ফেরার দেশে চলে গেলেন। তিনি নিউজিল্যান্ডের ইউনিভার্সিটি অব ওটাগোতে পিএইচডি শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি (অর্পিতা রায়) হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন বলে জানান অধ্যাপক ফিরোজ।

অর্পিতা রায়ের মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর  বলেন, অর্পিতা রায়ের মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এ প্রথম আমরা কোনো সহকর্মীকে হারালাম। আমরা তার পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জানাই।

অর্পিতা রায়ের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন নোবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম। শোক বার্তায় উপাচার্য বলেন, অর্পিতা রায়ের মৃত্যুতে নোবিপ্রবি পরিবার গভীরভাবে শোকাহত। তিনি শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন ও আত্মার শান্তি কামনা করেন।

উল্লেখ্য, অর্পিতা রায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ থেকে পড়াশোনা শেষ করে নোবিপ্রবিতে শিক্ষকতা শুরু করেন। তিনি ২০১৯ সাল থেকে নিউজিল্যান্ডের ওটাগো বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি করছিলেন।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top