‘আফগান মেয়েরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছেলেদের সঙ্গে ক্লাস করতে পারবে না’

image-464391-1631471071.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : আফগান নারীদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা গ্রহণের অনুমতি দিচ্ছে তালেবান। তবে তারা ছেলেদের সঙ্গে ক্লাস করতে পারবে না। আফগানিস্তানের কেয়ারটেকার সরকারের উচ্চ শিক্ষাবিষয়ক মন্ত্রী আবদুল বাকি হাক্কানি এ নির্দেশনার কথা জানিয়েছেন। তিনি স্পষ্ট করে বলেছেন, আফগানিস্তানের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সহশিক্ষা নিষিদ্ধ থাকবে।

রোববার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে আফগান শিক্ষামন্ত্রী এ ঘোষণা করেন। এ সময় তিনি শিক্ষা বিষয়ে আফগানিস্তানের নতুন সরকারের বিস্তারিত পরিকল্পনা তুলে ধরেন।

তালেবানের শিক্ষামন্ত্রী হাক্কানি বলেন, শ্রেণিকক্ষে নারী ও পুরুষ শিক্ষার্থীদের আলাদাভাবে বসতে হবে। আমরা ছেলে–মেয়েদের একসঙ্গে ক্লাস করতে দেব না।

তিনি বলেন, আমরা সহশিক্ষার অনুমোদন দেব না। দেশের লোকজন মুসলমান এবং তাদেরকে এটা গ্রহণ করতে হবে। এছাড়া আফগানিস্তানের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠদানের বিষয়গুলো পর্যালোচনা করা হবে বলেও জানান তিনি।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর তালেবানের পক্ষ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল, বিশ্ববিদ্যালয়ে নারীরা পড়তে পারবেন; তবে পুরুষদের থেকে তাদের আলাদা হয়ে ক্লাস করতে হবে। এবার আনুষ্ঠানিকভাবে  তালেবানের শিক্ষামন্ত্রী সেই নিয়ম জানিয়ে দিলেন।

গত ১৫ আগস্ট রাজধানী কাবুল দখলের মাধ্যমে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর তালেবান ঘোষণা দিয়েছিল যে, তাদের আগের শাসনের চেয়ে এবারের শাসন-ব্যবস্থা ভিন্ন হবে। ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তালেবানের শাসনামলে আফগান মেয়েদের লেখাপড়া নিষিদ্ধ ছিল। এবার ক্ষমতায় এসে তালেবান প্রথম দিকেই ঘোষণা করেছে যে, নারীরা লেখাপড়ার সুযোগ পাবে তবে এক্ষেত্রেও শরীয়া আইন অনুসরণ করা হবে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top