কোহলি নোংরা রাজনীতির শিকার : সালমান বাট

201555pjimage-1.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট: ইদানীং ভারতের ক্রিকেট নিয়ে নিয়মিতভাবে পাকিস্তানের সাবেক বিভিন্ন ক্রিকেটার কথা বলে যাচ্ছেন। এদের মাঝে নিয়মিত হলেন শোয়েব আখতার, ইনজামাম উল হক কিংবা সালমান বাট। আজ সোমবার খবর বেরিয়েছে, আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরই রঙিন পোশাকের ক্যাপ্টেন্সি ছেড়ে দেবেন বিরাট কোহলি। তার জায়গায় সাদা বলে নেতৃত্ব দেবেন রোহিত শর্মা। তবে সাদা পোশাকে অধিনায়কত্ব বহাল থাকবেন কোহলি। এই খবরটিকে সালমান বাট দেখছেন ‘নোংরা রাজনীতি’ হিসেবে।

স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে নিষিদ্ধ ৩৭ বছর বয়সী সালমান বাট নিজের ইউটিউব চ্যানেলে বলেছেন, ‘খবরটি বাজারে আসার সময়টা দেখেছেন? বিসিসিআই অধিনায়কত্বের ব্যাপারে কী ভাবছে, সেটা নিয়ে আমার চিন্তা নেই। ওদের ক্রিকেট কে সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে, ওরা সেটা চিন্তা করে বের করবে। কিন্তু সেসব নিয়ে আলোচনা করার জন্য সময়টা কীভাবে বেছে নেয়? এখন তো বিরাট কোহলির অধিনায়কত্ব হুমকির মুখে বলে খবর আসছে! অথচ, কদিন আগে ইংল্যান্ডের মাটিতে ভারত সিরিজ খেলল, কোহলি সেখানে দলকে দারুণভাবে নেতৃত্ব দিয়েছে।’

২০১৪ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনি টেস্ট থেকে অবসরে যাওয়ার পর থেকেই ভারতের টেস্ট দলের অধিনায়ক কোহলি। এরপর রঙিন পোশাকেও তিনি নেতৃত্বভার পান। তবে শুধু জাতীয় দলে নয়; অধিনায়ক হিসেবে আইপিএলেও কোনো সাফল্য পাননি কোহলি। তার দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু শিরোপার মুখ দেখেনি। তবে ৬৫ টেস্টে ৩৮ জয় নিয়ে টেস্টে তিনিই ভারতের সফলতম অধিনায়ক। অন্যদিকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে পাঁচবার শিরোপা জেতানোর পাশাপাশি বেশ কিছু আন্তর্জাতিক শিরোপাও জিতেছেন রোহিত।

সালমান বাট অবশ্য ট্রফি নিয়ে এই তুলনায় যেতে রাজি নন। তিনি বলেছেন, ‘ট্রফি জেতা গুরুত্বপূর্ণ, সেটা ঠিক আছে। কিন্তু কোহলি যত ম্যাচে অধিনায়কত্ব করেছে, তাতে ভারতের জয়ের হার এবং বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশে ওর সাফল্যও তো দেখতে হবে। আমার মনে হয়, এটা এসব নিয়ে কথা বলার সময় নয়। এই ছেলেটি ভারতের ক্রিকেটের জন্য অনেক কষ্ট করেছে। এখন যে খবর ছড়াচ্ছে, সেটা নিছকই কারও খারাপ উদ্দেশ্য থেকে করা, যেটা হওয়া উচিত নয়। এখন বিশ্বকাপ একেবারে সামনে চলে এসেছে। এ পরিস্থিতিতে সংবাদমাধ্যমে এমন খবর আসা নোংরা রাজনীতি ছাড়া আর কিছুই না।’

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top