চিতলমারীতে ভ্রাতৃত্ববোধ রক্ষার্থে সভা, ফুল দিয়ে সংবর্ধনা

CHITALMARI-NEWS-12.09.2021-4-1.jpg

চিতলমারী প্রতিনিধি: পুরুষদের হাতে রজনীগন্ধা। নারীদের হাতে লাল গোলাপ। এরা সবাই ২০ সেপ্টেম্বরের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থী। পুরুষরা সদস্য আর নারীরা সংরক্ষিত মহিলা সদস্য প্রার্থী।

রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪ টায় বাগেরহাটের চিতলমারী থানার সভাকক্ষে পরিদর্শক (ওসি) এ এইচ এম কামরুজ্জামান খান তাঁদের ফুল দিয়ে সংবর্ধনা জানান।

সংবর্ধনা ও মতবিনিময় সভার উদ্দেশ্য ২০ তারিখের নির্বাচনে প্রার্থীদের পরস্পর ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় রাখা।

সভায় সন্তোষপুর, চিতলমারী সদর, চরবানিয়ারী, শিবপুর ও হিজলা ইউনিয়নের ৫১ জন সংরক্ষিত নারী ও ১৪০ জন সদস্য প্রার্থী উপস্থিত ছিলেন।

সভায় থানার পরিদর্শক (ওসি) এ এইচ এম কামরুজ্জামান খান প্রার্থীদের বলেন, আমারা চাকুরীর সুবাদে আপনাদের এলাকায় এসেছি। আবার চলেও যাব। আপনারাই এই এলাকায় বাস করবেন। তাই আগামী ২০ তারিখের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আপনাদের ভ্রাতৃত্ববোধ ও সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে। জনগন ভোট দিবে। আপনারা নির্বাচিত হবেন। সহিংসতা ছড়ালে নির্বাচন বন্ধ হতে পারে। ভোট প্রয়োগে কোন প্রকার বাধা সৃষ্টি করা যাবে না।

এ সময় সদস্য প্রার্থী হিজলা ইউনিয়নের জগদীশ চন্দ্র বসু, মেহেদী হাসান সবুজ, লতা কাজী, চিতলমারী সদর ইউনিয়নের শেখ মতিয়ার রহমান টুকু ও সোহাগ শেখ পুলিশের এই কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, আমরাও চাই অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন। পেশী শক্তির দিন এখন শেষ। তাই জোর করে জয়ী হওয়া যাবে না।

মতবিনিময় সভায় এ সময় পরিদর্শক (তদন্ত) মো. ইকরাম হোসেন, থানার অফিসারগন ও স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে সকলের মঙ্গল কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন পুলিশের বিশেষ শাখার (ডিএসবি) এডিআইও কে এম বদরুল আলম।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top