চৌগাছায় লাঠির আঘাতে একজনের মৃত্যু : আটক ৩

download-5-1.jpg

চৌগাাছা (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের চৌগাছায় পূর্ব শত্রুতার জেরে চাচাতো ভাইয়ের লাঠির আঘাতে এনামুল হক (২৫) নামের একজন মারা গেছে।

শুক্রবার সকালে উপজেলার ফুলসারা ইউনিয়নের দূর্গাবরকাটি গ্রামে এই হত্যাকান্ড ঘটে। হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে তিন জনকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

থানা ও এলাকাবাসি সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকাল ৯ টার দিকে উপজেলার দূর্গাবরকাটি গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জেরে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। গ্রামের মতিয়ার রহমান ওরফে মতির ছেলে এনামুল হক তার চাচা আহমদ আলীর ছেলে কুরবান আলীর সাথে বাকবিতান্ডে জড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে এনামুল নিজ বাড়িতে চলে আসে। কিছুক্ষন পর কুরবান আলী ও তার ভাই রবিউল ইসলাম, কামাল হোসেন এবং রবিউলের ছেলে শান্ত লাঠিসোটা নিয়ে এনামুল হকের বাড়িতে ঢুকে তাকে বেধড়ক মারপিট করে। মাথায় লাঠির আঘাতে এনামুল হক মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায়। খবর পেয়ে থানা অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম ও সেকেন্ড অফিসার মেহেদী হাসান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এ সময় গ্রামবাসির সহযোগীতায় হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে রবিউল ইসলাম, কামাল হোসেন ও শান্তকে আটক করেন। তবে কুরবান আলী পলাতক বলে জানা গেছে।

চৌগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাঁশের লাঠির আঘাতে এনুমল হক নামের একজন মারা গেছেন। ময়না তদন্তের জন্য মরাদেহ যশোর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন জনকে থানায় আনা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে, প্রায় ৩ মাস আগে গ্রামের ৫/৬ বছরের এক মেয়ে শিশুকে রহস্যের ছলে পরনের পোষাক ধরে টান দিলে খুলে যায়। এ নিয়ে গ্রাম্য শালিসে এনামুল হকের পরিবারকে অভিযুক্ত করে বিচারও হয়। তিন মাস পর ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সকালে কথাকাটাকাটি হয় একপর্যায়ে ঘটে হত্যাকান্ডের মত ঘটনা।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top