কাসেমিরোকে যেতে দিতে চাননি সতীর্থের প্রেমিকাও

mina-bonino-federico-valverde-20220820140355.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : কাসেমিরোর আকস্মিক রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার খবরে বিষণ্ণ ক্লাবটির সমর্থকরা। স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নরা এই মিডফিল্ডারকে ছাড়তে খুব একটা অনীহা জানায়নি, তবে কোচ কার্লো অ্যানচেলোত্তিও এই ‘মিডফিল্ড জেনারেলের’ প্রস্থানে নাখোশ। সরাসরি না বললেও সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে আকার-ইঙ্গিতে সেটা বুঝিয়ে দিয়েছেন এই ইতালিয়ান। কাসেমিরোর বিদায়ে অনেকের মতো ব্যথিত তার ক্লাব সতীর্থ ফেদে ভালভার্দের প্রেমিকাও।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, কাসেমিরোকে ক্লাবে থেকে যেতে অনুরোধ করেছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের উরুগুইয়ান মিডফিল্ডার ভালভার্দের প্রেয়সী মিনা বনিনো। ফাঁস হওয়া হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের স্ক্রিনশটে দেখা যায়, বনিনো স্প্যানিশ ভাষায় কাসেমিরোকে বলছেন, ‘হিল দে মিয়ের্দা’ (যেও না)।

এদিকে প্রায় ৬৭৩ কোটি টাকা খরচ করে রিয়ালের মধ্যমাঠের প্রাণভোমরা কাসেমিরোকে দলে টেনেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। নতুনব কোচ এরিক টেন হাগের অধীনে টানা দুই হারে মৌসুম শুরু করা ইউনাইটেড ছন্দে ফেরার জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। ইউনাইটেডের টালমাটাল মধ্যমাঠে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগজয়ী কাসেমিরো কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণে আনতে পারবেন বলেই ইউনাইটেড কর্তৃপক্ষের বিশ্বাস।

আরও পড়ুন : বাবার হাত ধরে থাকা শিশুর প্রাণ গেল পিকআপ ভ্যানচাপায়

২০১৩ সয়ালে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব সাও পাওলো থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দিয়েছিলেন কাসেমিরো। ক্লাবটির হয়ে গত ৯ মৌসুমে ৩৩৬ ম্যাচ খেলেছেন তিনি। এই সময়ে ক্লাবটির হয়ে সম্ভাব্য সবকিছুই জিতেছেন। মাদ্রিদের জার্সিতে ৫টি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, ৩টি ক্লাব বিশ্বকাপ, ৩টি উয়েফা সুপার কাপ, ৩টি লা লিগা, ১টি কোপা দেল রে এবং ৩টি স্প্যানিশ সুপার কাপ শিরোপা উঁচিয়ে ধরেছেন তিনি।

কাসেমিরোর ব্যাপারে মাদ্রিদের সঙ্গে চুক্তির খবর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এক বিবৃতির মাধ্যমে নিশ্চিত করেছে। তার সঙ্গে কথাবার্তা, মেডিক্যাল এবং যুক্তরাজ্যের ভিসা পাওয়ার প্রক্রিয়া শেষ হলেই দলবদল সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছে ক্লাবটি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top