ত্বকের বয়স কমাবে যেসব খাবার

food-2-20220806121750.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : ত্বকে বয়সের ছাপ পড়লে তা লুকানোর চেষ্টায় কত কী না করা হয়! কিন্তু মেকআপে মুখের দাগ লুকানো গেলেও বয়সের ছাপ লুকানো যায় না। আমাদের প্রতিদিনের কিছু ভুল অভ্যাস যেমন সানস্ক্রিন ব্যবহার না করা, পানি কম পান করা, চিনিযুক্ত খাবার বেশি খাওয়া, রাত জেগে থাকা ইত্যাদির কারণে দ্রুত ত্বকের বয়স বেড়ে যায়। আবার দূষণ, রোদ, ধুলোবালিও কম দায়ী নয়। ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দিতে না চাইলে খেতে হবে কিছু খাবার। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

কোলাজেনযুক্ত খাবার খান-ত্বক ভালো রাখার জন্য এই উপাদান বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কোলাজেন হলো এক ধরনের প্রোটিন। এটি ত্বককে দৃঢ়, বলিরেখা মুক্ত এবং সুস্থ রাখে। বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শরীরে কোলাজেন উৎপাদন কমতে থাকে। সে কারণে খাবারের মাধ্যমে এই ঘাটতি পূরণ করতে হবে। এক্ষেত্রে মাংসের ঝোল খুব উপকারী। এছাড়া ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়ামের মতো খনিজ পদার্থযুক্ত খাবার প্রতিদিন খেতে হবে।

সবুজ শাকসবজি-প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় রাখতে হবে পর্যাপ্ত সবুজ শাক-সবজি। সবুজ শাক-সবজিতে তাকে প্রায় সব ধরনের ভিটামিন ও পুষ্টি উপাদান। এসব খাবার দূষণ ও রোদের কারণে সৃষ্ট ক্ষতি থেকে ত্বককে রক্ষা করতে কাজ করে। তাই নিয়মিত সবুজ শাক-সবজি খেলে চেহারায় বয়সের ছাপ সহজে পড়ে না।

আরও পড়ুন : জীবনযাত্রার ব্যয় বাড়বে, উসকে দেবে মূল্যস্ফীতিকে

দারুচিনি-উপকারী মসলা দারুচিনি। এটি সাধারণত রান্নার স্বাদ ও গন্ধ বাড়াতে ব্যবহার করা হয়। তবে দারুচিনির রয়েছে আরও অনেক কার্যকারিতা। কারণ এটি পলিফেনল সমৃদ্ধ। ত্বকের জন্য স্বাস্থ্যকর কোষ উৎপাদনকে দ্রুত বাড়িয়ে দেয় এই মসলা। তাই নিয়মিত দারুচিনি খেতে পারেন। এতে ত্বকে বয়সের ছাপ সহজে পড়বে না।

আদা ও মধু-আদা ও মধু দুটোই বেশ উপকারী। আদায় থাকে জিঞ্জেরেল যার রয়েছে প্রদাহরোধী বৈশিষ্ট্য। এটি ত্বকের ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলতে সাহায্য করে। আদার রস যদি মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খান তবে সেটি বার্ধক্য ঠেকাতে দারুণভাবে কাজ করে। এটি পরিণত হয় প্রাকৃতিক অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিফাঙ্গাল দ্রবণে। তাই বলিরেখা রোধ করা সহজ হয়।

মাশরুম-মাশরুম খাওয়ার অনেকগুলো উপকারিতার একটি হলো, এটি ত্বকে বয়সের ছাপ পড়া রোধ করে। কারণ মাশরুমে থাকে প্রচুর কপার। এটি ত্বকে প্রাকৃতিকভাবে উপস্থিত প্রোটিন, কোলাজেন এবং ইলাস্টিনকে সংশ্লেষিত এবং স্থিতিশীল করতে সহায়তা করে। তাই ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দিতে না চাইলে নিয়মিত মাশরুম খান।

স্বাস্থ্যকর ফ্যাট-ভিটামিন এ, ডি, ই এবং কে ফ্যাট দ্রবণীয় ভিটামিন। ভিটামিন এ ত্বকের কোষ মেরামত করে ও কোলাজেন উৎপাদনকে স্থিতিশীল করে। এছাড়া অন্যান্য ফ্যাট-দ্রবণীয় ভিটামিন সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে। খাবারের তালিকায় স্যামন মাছ, অ্যাভোকাডো, আখরোট, ঘি, তিল, অলিভ অয়েল ইত্যাদি রাখলে বয়সের ছাপ সহজে পড়বে না।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top