বাড়তি দামেও তেল চুরি : পেট্রোল পাম্পকে আড়াই লাখ টাকা জরিমানা

oil-bg-20220806184433.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : জ্বালানি তেলের মূল্য বেড়েছে। বাড়তি দাম নিয়েও কারচুপি করে ওজনে কম দিচ্ছে অকটেন। আবার বেশি দামে জ্বালানি তেল বিক্রি করতে নির্ধারিত সময়ের আগেই ফিলিং স্টেশন বন্ধ রাখার অপরাধে করিম অ্যান্ড সন্স ফিলিং স্টেশনকে আড়াই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

শনিবার (৬ আগস্ট) রাজধানীর মতিঝিলে অভিযান চালিয়ে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর তাদের এ জরিমানা করে। অভিযান পরিচালনা করেন ঢাকা জেলা কার্যালয়ের অফিস প্রধান মো. আব্দুল জব্বার মণ্ডল ও ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. মাগফুর রহমান ও সহকারী পরিচালক মাহমুদা আক্তার।

আব্দুল জব্বার মণ্ডল জানান, অভিযান পরিচালনার সময় মতিঝিল করিম অ্যান্ড সন্স ফিলিং স্টেশনের ২টি ডিসপেনসিং ইউনিট অকটেন পরিমাপক যন্ত্রে কারচুপির প্রমাণ পাওয়া যায়। তাদের ১টি ডিসপেনসিং ইউনিটে প্রতি ৫ লিটার অকটেনে ৫৪০ মিলিলিটার ও অপরটিতে ৪৯০ মিলিলিটার অকটেন কম দিচ্ছে।

অকটেন ডিসপেনসিং ইউনিটে (অকটেন পরিমাপক যন্ত্রে) কারচুপি, ওজনে কম দেওয়া এবং বর্ধিত দামে অকটেন, ডিজেল বিক্রির উদ্দেশ্যে শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টার আগেই ফিলিং স্টেশন বন্ধ রাখে তারা। এসব অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ অনুযায়ী ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একইসঙ্গে ডিসপেনসিং ইউনিট ২টি থেকে অকটেন বিক্রি জনস্বার্থে সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

তবে স্বেচ্ছায় দোষ স্বীকার করে জরিমানা দেওয়া এবং সবার উপস্থিতিতে ডিসপেনসিং ইউনিট ২টি কারেকশন করাসহ ভবিষ্যতে এ ধরনের কার্যক্রম থেকে বিরত থাকবেন মর্মে অঙ্গীকার করে পাম্প কর্তৃপক্ষ।

এর আগে রমনা ফিলিং স্টেশনে তদারকি করে মেয়াদোত্তীর্ণ ট্রেড লাইসেন্স পাওয়া গেলেও বিস্ফোরক পরিদপ্তর, ফায়ার সার্ভিসসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় লাইসেন্স দেখাতে ব্যর্থ হয় তারা।

ফিলিং স্টেশনটিতে ২৭ হাজার ৬২৩ লিটার অকটেন বর্তমান মজুত পাওয়া গেলেও বিনা নোটিশে শুক্রবার (৫ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টা থেকে ফিলিং স্টেশনটি বন্ধ রাখার প্রমাণ পাওয়া যায়। প্রতিষ্ঠানটির প্রবেশ দ্বারে ‘ভিআইপি চলাচলে নিরাপত্তার স্বার্থে সাময়িকভাবে তেল বিক্রয় বন্ধ’ লেখা টানানোর প্রমাণ পাওয়া যায়। সত্যি সত্যি কোন ভিআইপি চলাচল করেছেন কি না এবং সরকারের কোনো সংস্থা থেকে প্রতিষ্ঠানটিকে এ ধরনের অনুরোধ বা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে কি না সে ব্যাপারে কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি তারা।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ বিষয়গুলোর ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য রোববার (৭ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৯টায় অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে সশরীরে উপস্থিত হতে পাম্প কর্তৃপক্ষতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top