নিয়োগ পরীক্ষায় ‘প্রক্সি’তে পাস, মৌখিক পরীক্ষায় ধরা!

1659620194.Panchaghar.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : পঞ্চগড়ে প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে (প্রক্সি) স্বপন সেন (২৯) নামে এক পরীক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরের দিকে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে মৌখিক পরীক্ষা দেওয়ার পর সেখান থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটক স্বপন পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের লাঙলগাঁও এলাকার কমলা কান্ত সেনের ছেলে।

পুলিশ ও জেলা প্রাথমিক নিয়োগ বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষার জন্য মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হয়। এ সময় মৌখিক পরীক্ষায় স্বপনকে লিখতে বলা হয়। এদিকে, মৌখিক পরীক্ষায় লিখিত পরীক্ষার উত্তর পত্রের লেখার সঙ্গে কোনো মিল না থাকায় নিয়োগ বোর্ডের সন্দেহ হয় এবং পরে তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি স্বীকার করে নিয়োগের জন্য লিখিত পরীক্ষা প্রক্সির মাধ্যমে অন্যের দ্বারা দিয়ে ছিলেন এবং এজন্য তিনি মোটা অংকের টাকাও লেনদেন করেছেন বলে স্বীকার করেন। পরে তাকে জেলা প্রশাসকের কক্ষে আটক করে সদর থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হয় এবং পুলিশ খবর পেয়ে আটক স্বপ্ননকে সঙ্গে সঙ্গে থানায় নিয়ে যায়।

পঞ্চগড় জেলা প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বোর্ডের চেয়ারম্যান ও জেলা প্রশাসক (ডিসি) জহুরুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, মৌখিক পরীক্ষা নেওয়ার সময় স্বপন সেনকে একটি কাগজে লিখতে বলা হয়। তার হাতের লেখা দেখে প্রাথমিকভাবে আমাদের সন্দেহ হয়। পরে কৌশলে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি স্বীকার করেন অন্য কাউকে দিয়ে লিখিত পরীক্ষা দিয়েছিলেন, সেজন্য তিনি মোটা অংকের টাকা লেনদেনও করেছেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে তাকে আটক করে রেখে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তবে কত টাকা লেনদেন করেছেন বা করার কথা সেটা পুলিশ তদন্ত করে দেখবে।

পঞ্চগড় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) বেনজির আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে বলেন, পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে এক পরীক্ষার্থীকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে দুপুরে থানায় আনা হয়। তাদের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top