‘এক চীন’ নীতির প্রতি দৃঢ় সমর্থন রয়েছে ঢাকার

02ministry-of-foreign-affa-20220804154150.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : তাইওয়ান পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে বাংলাদেশ। পাশাপাশি বাংলাদেশ সরকার চীনের ‘এক চীন’ নীতির প্রতি দৃঢ় সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করছে।বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) তাইওয়ান পরিস্থিতি নিয়ে এক বিবৃতিতে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশ তাইওয়ান পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।

সর্বোচ্চ সংযম অবলম্বন করার পাশাপাশি উত্তেজনা বাড়াতে পারে, এ অঞ্চল এবং এর বাইরে শান্তি-স্থিতিশীলতা নষ্ট হতে পারে, এমন কোনো কাজ থেকে সংশ্লিষ্টদের বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছে বাংলাদেশ।

আরও পড়ুন : নর্থ সাউথের আরো দুই ট্রাস্টির হাইকোর্টে জামিন আবেদন

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ ‘এক চীন’ নীতির প্রতি তার দৃঢ় সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করছে  এবং জাতিসংঘের সনদ অনুযায়ী আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে তাদের মতপার্থক্য নিরসনের জন্য সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোকে আহ্বান জানাচ্ছে।এর আগে, যুক্তরাষ্ট্রের হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে দেন ঢাকায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং।

বিবৃতিতে রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের সরকার ও জনগণ অব্যাহতভাবে ‘এক চীন’ নীতি মেনে চলবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। পাশাপা‌শি তাইওয়ান প্রশ্নে চীনের আইনসম্মত ও ন্যায্য অবস্থান বুঝবে ও সমর্থন করবে বাংলাদেশ—এমনটিই মনে করেন রাষ্ট্রদূত।চীনের কড়া হুঁশিয়ারির পরও ২ আগস্ট তাইওয়ানে যান যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top