বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার-শাস্তি দাবি

mohila-porishod-20220804195713.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : কুষ্টিয়া থেকে ঢাকাগামী ঈগল পরিবহনের নৈশকোচে ডাকাতি ও এক নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত করে দ্রুত গ্রেপ্তার, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ।

বৃহস্পতিবার (০৪ আগস্ট) মহিলা পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম ও সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার প্রাগপুর থেকে ঢাকাগামী ঈগল পরিবহন যাত্রীবাহী নৈশকোচে ডাকাতি ও এক নারীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। আমরা গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছি, গণপরিবহন, রাস্তাঘাটসহ সর্বত্র নারী ও কন্যার প্রতি সংঘটিত সহিংসতার ঘটনা আশঙ্কাজনক পর্যায়ে পৌঁছেছে। রাস্তাঘাট, গণপরিবহনে নারী ও শিশুর নিরাপত্তা চরমভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে এবং আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতিকে চরমভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করছে।

চলন্ত বাসে ডাকাতি, নারী যাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ গভীরভাবে উদ্বিগ্ন ও ক্ষুব্ধ। আমরা নৈশকোচে ডাকাতি ও নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত করে দ্রুত গ্রেপ্তার, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও ঘটনার শিকার যাত্রীদের সুচিকিৎসা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানাচ্ছি।

তারা বলেন, গণপরিবহনে নিরাপদ যাত্রী পরিবহন ও সড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে মালিক ও পরিবহন সংশ্লিষ্টদের দায়বদ্ধতা নিশ্চিত করার দাবি জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে যত্রতত্র গণপরিবহনে যাত্রী ওঠানো বন্ধসহ এ ধরনের রোমহর্ষক ঘটনার পুনরাবৃত্তি বন্ধে নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top