ধাওয়া খেয়ে বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষ, পুলিশের অস্বীকার

untitled-4-20220803175204.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের বহদ্দারপুল এলাকায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে কোরবান আলী নামে এক অটোরিকশা চালক নিহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় আধা ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন উত্তেজিত জনতা। তাদের অভিযোগ, হাইওয়ে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে পালানোর সময় বাসের সঙ্গে অটোরিকশাটির সংঘর্ষ হয়। তবে পুলিশের দাবি তারা কোন গাড়িকে ধাওয়া করেনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সীতাকুণ্ডের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে অটোরিকশা চালক কোরবান আলী ঘটনাস্থলে মারা যান। আহত হন গাড়ির পাঁচ যাত্রী। গুরুতর  আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনার পর স্থানীয়রা ৩০ মিনিটের মতো মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। স্থানীয়দের অভিযোগ, হাইওয়ে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে পালানোর সময় সিএনজিচালিত অটোরিকশাটি বাসের নিচে পড়ে।

কুমিরা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, অটোরিকশা-বাসের সংঘর্ষের খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে। অটোরিকশাটি উল্টো পথে যাচ্ছিল।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন হাইওয়ে পুলিশ অটোরিকশাটিকে ধাওয়া দিয়েছিল এমন প্রশ্ন করা হলে পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, পুলিশ কোন গাড়িকে ধাওয়া করেনি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করেছে। তারা ঘটনাস্থল থেকে অনেক দূরে ছিল।

বহদ্দারপুল এলাকায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে কোরবান আলী নামে এক অটোরিকশা চালক নিহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় আধা ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন উত্তেজিত জনতা। তাদের অভিযোগ, হাইওয়ে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে পালানোর সময় বাসের সঙ্গে অটোরিকশাটির সংঘর্ষ হয়। তবে পুলিশের দাবি তারা কোন গাড়িকে ধাওয়া করেনি।

বুধবার (৩ আগস্ট) দুপুরর দিকে ঢাকা- চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ডের বহদ্দারপুল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সীতাকুণ্ডের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে অটোরিকশা চালক কোরবান আলী ঘটনাস্থলে মারা যান। আহত হন গাড়ির পাঁচ যাত্রী। গুরুতর আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনার পর স্থানীয়রা ৩০ মিনিটের মতো মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। স্থানীয়দের অভিযোগ, হাইওয়ে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে পালানোর সময় সিএনজিচালিত অটোরিকশাটি বাসের নিচে পড়ে।

কুমিরা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, অটোরিকশা-বাসের সংঘর্ষের খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে। অটোরিকশাটি উল্টো পথে যাচ্ছিল।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন হাইওয়ে পুলিশ অটোরিকশাটিকে ধাওয়া দিয়েছিল এমন প্রশ্ন করা হলে পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, পুলিশ কোন গাড়িকে ধাওয়া করেনি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করেছে। তারা ঘটনাস্থল থেকে অনেক দূরে ছিল।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top