চীনে গ্যাস সরবরাহ বাড়াল রাশিয়া

download-1.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : পাওয়ার অব সাইবেরিয়া পাইপ লাইন দিয়ে চীনে প্রাকৃতিক গ্যাসের সরবরাহ বাড়িয়েছে রাশিয়া।এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় জ্বালানি কোম্পানি গ্যাজপ্রম।

গত বছরের একই সময়ের চেয়ে চীনে গ্যাসের রপ্তানি বেড়েছে ৬০ দশমিক ৯ শতাংশ। বিশেষ করে জুলাই মাসে চুক্তির চেয়েও প্রতিদিন বেশি গ্যাস সরবরাহ করা হয়েছে।গ্যাজপ্রম বলছে, ঐতিহাসিক চুক্তির চেয়ে প্রতিদিন প্রায় তিনগুণ বেশি গ্যাস সরবরাহ করা হচ্ছে।

অন্যদিকে কমনওয়েলথ অব ইনডিপেন্ডেন্ট স্টেটসের বাইরের দেশগুলোতে গ্যাস সরবরাহ শতকরা ৩৪ দশমিক ৭ শতাংশ কমানো হয়েছে। তবে ক্রেতা দেশগুলোর অনুরোধ অনুসারেই গ্যাসের সরবরাহ করা হচ্ছে বলে দাবি গ্যাজপ্রমের।

প্রাথমিক তথ্য অনুসারে, চলতি বছরের প্রথম সাত মাসে বৈশ্বিক চাহিদা অনুসারে প্রায় ৩৫ বিলিয়ন ঘনমিটার গ্যাস কম রপ্তানি হয়েছে। ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার সংঘাত, ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা এবং রাশিয়ার পাল্টা নিষেধাজ্ঞার কারণে গ্যাসের এ রপ্তানি ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

আরও পড়ুন : ইউক্রেনের শস্যবাহী প্রথম জাহাজ তুরস্কে পৌঁছাল

সম্প্রতি লাটভিয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রেখেছে রাশিয়া। গ্যাজপ্রম জানিয়েছে, গ্যাস উত্তোলনের শর্ত লঙ্ঘনের অভিযোগে তারা প্রতিবেশী দেশটিতে সরবরাহ বন্ধ রেখেছে।

লাটভিয়ার জ্বালানি সংস্থা লাটভিজাস গেজ এর আগে জানিয়েছিল যে, তারা রাশিয়া থেকে গ্যাস কিনছে এবং গ্যাজপ্রমের সঙ্গে তাদের এই বাণিজ্যে রুবলের পরিবর্তে ইউরোতে অর্থ প্রদান করা হচ্ছে। এমন ঘোষণার একদিন পরেই গ্যাজপ্রম গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখার কথা জানানো হয়।

এর আগে গ্যাজপ্রম জানায়, তাদের প্রধান পাইপলাইনে রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোতে গ্যাস সরবরাহ আরও কমিয়ে দেওয়া হবে। নর্ড স্ট্রিম ১ নামে পরিচিত রাশিয়া থেকে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহের প্রধান পাইপলাইনে এই রক্ষণাবেক্ষণ কাজের কারণে উৎপাদন ২০ শতাংশ হ্রাস পাবে। যার ফলে বর্তমানের চেয়ে গ্যাস সরবরাহ অর্ধেক কমে যাবে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top