পানির ট্যাংকে ভেসে উঠল শিশুর দেহ

dhakapost-20220803134657.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজধানী মোহাম্মদপুরের বিজলি মহল্লায় গণপূর্তের নির্মাণাধীন ভবনের পানির ট্যাংকির মধ্যে এক শিশুর লাশ ভেসে ওঠে। পরে পুলিশ ওই মরদেহ উদ্ধার করে। শিশুর নাম শাহাদত হোসেন নয়ন (৬)। গতকাল (মঙ্গলবার) থেকে সে নিখোঁজ ছিল।

মোহাম্মদপুর থানা সূত্রে জানা গেছে, বুধবার (৩ আগস্ট) সকাল ৭টার দিকে গণপূর্তের নির্মাণাধীন ৭ নম্বর ভবনের অরক্ষিত একটি পানির ট্যাংকি থেকে শাহাদত হোসেন নয়ন নামে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছি। পরে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ। তিনি বলেন, মোহাম্মদপুরে গণপূর্তের নির্মাণাধীন একটি ভবনের পানির ট্যাংকি থেকে নয়ন নামে একটি শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে আমাদের একটি টিম আছে।

আরও পড়ুন : মালদ্বীপে নিখোঁজ বাংলাদেশি আবদুল কাদের

ঘটনাস্থলে থাকা মোহাম্মদপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শাকিল জোয়ারদার বলেন, সকাল ৭টার দিকে গণপূর্তের নির্মাণাধীন ৭ নম্বর ভবনের অরক্ষিত পানির ট্যাংকি থেকে শাহাদত হোসেন নয়ন নামে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছি। মরদেহটি শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, গতকাল (মঙ্গলবার) থেকে শিশুটি নিখোঁজ ছিল। সকালে ওই শিশুর দেহ ভেসে ওঠে। নির্মাণাধীন ভবনের পানির ট্যাংকি অরক্ষিত অবস্থায় ছিল। চারিদিকে দেয়াল থাকলেও গেট ছিল না। শিশুটি হয়তো কোনোভাবে ওখানে পড়ে যায়। এরকম সরকারি একটি ভবনে পানির ট্যাংকিতে ঢাকনা না থাকার বিষয়টি দুঃখজনক।

তিনি আরও বলেন, ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলেই মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় কারো কোনো গাফিলতি আছে কিনা সে বিষয়ে খতিয়ে দেখে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিহতের বাবা নুরুল ইসলাম ২০/১১ বিজলি মহল্লা এলাকায় থাকেন।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top