বল প্রয়োগের মাধ্যমে তাইওয়ানে কিছু ঘটুক তা চাই না: পেলোসি

1659508428.nancy_.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : যুক্তরাষ্ট্রের হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি বলেছেন, ওয়াশিংটন তাইওয়ান প্রণালীতে স্থিতাবস্থা সমর্থন করে এবং বল প্রয়োগের মাধ্যমে তাইওয়ানের সঙ্গে কিছু ঘটুক তা চায় না।তাইওয়ানের রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তাইপেইতে একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, তিনি এবং মার্কিন কংগ্রেসের সদস্যরা দ্ব্যর্থহীন বার্তা পাঠাতে দ্বীপটি পরিদর্শন করছেন।

বার্তাটি হলো, তাইওয়ানের পাশে দাঁড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।   তিনি বলেন, আমরা স্থিতাবস্থার সমর্থক। আমরা চাই না বল প্রয়োগের মাধ্যমে এখানে কিছু ঘটুক।পেলোসি আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্র চায়, তাইওয়ান নিরাপত্তাসহ স্বাধীনতা পাবে এবং তা থেকে পিছপা হবে না।চীনের কঠোর হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে এই মুহূর্তে তাইওয়ান সফর করছেন মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি।তার সফর ঘিরে চীনের সঙ্গে বিরাজ করছে চরম উত্তেজনা।

মঙ্গলবার রাতে তাইওয়ান সফরে যান ন্যান্সি পেলোসি। স্থানীয় সময় রাত ১০টা ৪৪ মিনিটে তাকে বহনকারী প্লেনটি রাজধানী তাইপের সোংশান বিমানবন্দরে অবতরণ করে। মার্কিন সামরিক বাহিনীর একটি বিমানে করে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে তাইপেতে উড়ে যান তিনি।২৫ বছরের মধ্যে মার্কিন কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের কোনও স্পিকার এই প্রথম তাইওয়ানে গেলেন, যে দ্বীপটিকে চীন নিজেদের অংশ বলেই দাবি করে।পেলোসির তাইওয়ান সফরের আগে চীন বলেছিল, ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ান সফর করলে সেনাবাহিনী বসে থাকবে না।

আরও পড়ুন : ওসমানী মেডিক‌্যালের ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ধর্মঘট অব‌্যাহত 

চীন ক্ষিপ্তভাবে পেলোসির এ সফরের নিন্দা জানিয়েছে। এশিয়ার সফরে পেলোসি তাইওয়ানে যাবেন, এমন খবর ফাঁস হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বেইজিং হুঁশিয়ার করে বলেছিল, ওয়াশিংটন ‘আগুন নিয়ে খেলছে’।তাইওয়ানের আশপাশের জলসীমায় সামরিক তৎপরতা শুরু করেছে চীন। পাশাপাশি বেইজিংয়ে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে পাঠিয়েছে। এছাড়া তাইওয়ান থেকে বিভিন্ন কৃষিপণ্য আমদানি স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে চীন।

বৃহস্পতিবার থেকে তাইওয়ানের চারপাশের সাগরে তিন দিনের সামরিক মহড়া শুরু করার ঘোষণাও দিয়েছে বেইজিং।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top