যাত্রীর আঘাতে নৌকা থেকে বুড়িগঙ্গায় পড়ে মাঝির মৃত্যু

1659511356.Buriganga.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : যাত্রীর আঘাতে বুড়িগঙ্গা নদীতে পড়ে সোহরাব সিকদার (৫০) নামে এক মাঝির মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাত ৮টার দিকে মিটফোর্ড বালুর ঘাট ও কেরানীগঞ্জের জিনজিরা থানাঘাটের মাঝ নদীতে এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, বাকবিতণ্ডার একপর্যায় যাত্রী মনির নৌকার পাটাতনের কাঠ দিয়ে মাঝি সোহরাব হোসেনকে আঘাত করলে তিনি নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন। পরে রাত সোয়া ১২টার দিকে ডুবুরিরা তার মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় যাত্রী মনির হোসেনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে ঘাটের মাঝিরা। মাঝি সোহরাব হোসেনের গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুরের শিবচর উপজেলার বদদেয়ালো গ্রামে। বাবার নাম লিয়াকত শিকদার। তিনি জিনজিরা থানাঘাট এলাকায় একটি মেসে ভাড়া থাকতেন। স্থানীয় একটি  মসজিদের কালেকশনের পাশাপাশি বুড়িগঙ্গায় নৌকা চালাতেন বলে জানিয়েছেন তার ভাই জাহাঙ্গীর ডুবুরি। তিনি ২ ছেলে, ২ মেয়েসহ ৪ সন্তানের জনক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার রাত ৮ টার সময় মিটফোর্ড বালুর ঘাট থেকে জিনজিরা যাওয়ার জন্য মো. মনির ( ৩০ ) নামে এক ব্যক্তি সোহরাব সিকদারের নৌকায় উঠেন। এসময় তিনি নৌকার সিগনাল বাতির ওপর বসে পরলে  এ নিয়ে তাদের মাঝে কথা কাটা কাটি হয়। কথা কাটাকাটি এক পর্যায়ে মনির প্রথমে সোরহাব মাঝিকে তার সাথে থাকা টিফিনবাটি দিয়ে আঘাত করে। পরে নৌকার পাতাটন দিয়েও সোরহাব মাঝির মাথায় আঘাত ।   এর ফলে সোরহাব মাঝি নদীতে পড়ে যায় । লোকজনের ডাক চিতকারে অন্য মাঝিরা জর হয়ে সোরহাব মাঝিকে খোজার চেষ্টা করে । অনেক খোঁজা খুঁজির পরে সোরহাব মাঝিকে রাতে সোয়া ১২ টারি দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

আরও পড়ুন : বাংলাদেশ জাতিসংঘের বন্ধু: অ্যান্তোনিও গুতেরেস

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ডিউটি অফিসার এস আই পান্নু মিয়া জানিয়েছেন, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে যাত্রী মনির হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।   এব্যাপারে একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top