এমপি পাপুলের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করেছে সিআইডি

Screenshot_2020-07-06-154856image-316518-1592312814-webp-WEBP-Image-800-×-483-pixels-1.png

কুয়েতে আটক লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি। তার কোথায় কী সম্পদ রয়েছে সেই সব সম্পদের কতটা বৈধ কতটা অবৈধ তার অনুসন্ধান করেছে তারা।

আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি হেডকোয়ার্টার্সে এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য দেয়া হয়েছে। গতকাল সিআইডির বিভিন্ন কার্যক্রমের বিষয়ে সিআইডি প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান সাংবাদিকদের জানান। এ সময় সিআইডির ডিআইজি ইমতিয়াজ আহমেদ, মাইনুল হাসান, ডিআইজি শেখ নাজমুল আলম সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

সেখানে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন পাপুলের বিরুদ্ধে তদন্ত করছে কি না সিআইডি। এর জবাবে সিআইডির ডিআইজি ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, ‘আমরা অনুসন্ধান শুরু করেছি।’

জানা গেছে পাপুলের বিরুদ্ধে মানবপাচার, অতিরিক্ত ভিসা নবায়ন ফি আদায়, কুয়েতের সরকারি কর্মকর্তাদের ঘুষ দেওয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগ তদন্ত করছে কুয়েত ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট- সিআইডি। তার বিরুদ্ধে ১১ জন বাংলাদেশি সাক্ষীও দিয়েছেন। এছাড়া পাপুলের বেশ কয়েকটি ব্যাংকের চেকবই জব্দ করেছে সিআইডি।

একই সঙ্গে কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। মানবপাচার ও অর্থপাচারে জড়িত থাকার অভিযোগে গত ৭ জুন কুয়েতের সিআইডি এমপি পাপুলকে আটক করে। তাকে দেশটির সিআইডি রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। কুয়েত সিআইডি এসব অভিযোগ তদন্ত করে দেখছে। এছাড়া পাপুলের কাছ থেকে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে ইতোমধ্যে কুয়েতের তিনজন সরকারি কর্মকর্তাকে আটক করা হয়েছে। তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদ চলছে বলে জানা গেছে।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: নিরাপত্তা সতর্কতা!!!