ভারতকে জবাব দিতে লাদাখে চীনের শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র!

image-148987-1593600435.jpg

১৫ জুন রাতে গালওয়ান উপত্যকায় চীনা সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষের এক কর্নেলসহ ২০ ভারতীয় সেনা নিহতের ঘটনায় সীমান্তে উত্তেজনা বিরাজ করছে। চীনকে উপযুক্ত জবাব দিতে প্রস্তুত রয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। এরই মধ্যে লাদাখে পৌঁছে গেছে প্রায় ৫০ হাজার অতিরিক্ত সেনা। টি-৯০ ভীষ্ম ট্যাংক, বসানো হয়েছে ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপণযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র, এয়ার সার্ভেল্যান্স সিস্টেম।

তবে বসে নেই চীন, পিছু হটেইনি উল্টো ভারতকে পাল্টা জবাব দিতে লাদাখে বিমানবিধ্বংসী শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র এস-৪০০, এস-৩০০ এনে জড়ো করেছে বেইজিং। এছাড়া চীন গালওয়ান নদী উপত্যকা, হট স্ক্রিং এবং প্যাংগং সো এলাকায় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর একটু একটু করে সমরসজ্জা বাড়িয়ে চলেছে।

প্যাংগং রেঞ্জের ফিঙ্গার পয়েন্ট ৪ ও ফিঙ্গার পয়েন্ট ৫ এলাকার মাঝামাঝি চীনের মান্দারিন ভাষায় লেখা বিশেষ প্রতীক ও ম্যাপের চিত্র ধরা পড়েছে স্যাটেলাইট ছবিতে।

গত কয়েক মাস ধরে চীনের সঙ্গে যুদ্ধ পরিস্থিতি বিরাজ করছে ভারতের। ৬ জুন উভয়পক্ষের প্রথম দফা বৈঠকে কোনো ফল আসেনি। ফলে ১৬ জুন চীন ও ভারতের সেনা সদস্যদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাধে।

গালওয়ান নিয়ে দু’দেশের উত্তপ্ত পরিস্থিতির মধ্যে চীনের বিরুদ্ধে ‘ডিজিটাল স্ট্রাইক’ চালাল ভারত। সোমবার টিকটক, ইউসি ব্রাউজার, শেয়ার-ইট, উই-চ্যাট ও ক্যাম স্ক্যানারসহ ৫৯টি মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে দেশটি। এতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে চীন সূত্র- দ্য প্রিন্ট।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: নিরাপত্তা সতর্কতা!!!