৫০ লাখ টাকার বৃত্তি পাচ্ছে জবি শিক্ষার্থীরা

dhakapost-202110112000351-20220628182939.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : দুটি ক্যাটাগরিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যাযের ১ হাজার ৯৩০ শিক্ষার্থীকে মোট ৫০ লাখ টাকা বৃত্তি দেওয়া হয়েছে।

তালিকায় নাম আসা শিক্ষার্থীদের বৃত্তি শাখা থেকে চেক গ্রহণ করতে বলেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর সূত্রে জানা যায়, মেধা ক্যাটাগরিতে বৃত্তিপ্রাপ্ত ৮১৩ শিক্ষার্থীকে প্রতি মাসে ৬০০ টাকা হারে ১২ মাসের এককালীন ৭ হাজার ২০০ টাকা দেওয়া হয়েছে। বৃত্তিপ্রাপ্ত ৮১৩ শিক্ষার্থীকে মোট ৪০ লাখ ৫৩ হাজার ৬০০ টাকা শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া এই ক্যাটাগরিতে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা আগামী এক বছর অর্থাৎ পরবর্তী দুই সেমিস্টারে বিনা বেতনে অধ্যয়ন করার সুযোগ পাবেন।

‘বৃত্তি নীতিমালা ২০১৩’ অনুযায়ী মেধাবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য প্রতিটি বিভাগের প্রতি ব্যাচ থেকে সর্বোচ্চ সিজিপিএ অর্জনকারী তিনজনকে মনোনীত করতে হবে; তবে শর্ত থাকে ৩ দশমিক ৬০-এর নিচে সিজিপিএ থাকা যাবে না। তবে অনেক বিভাগে নীতিমালার সমপরিমাণ সিজিপিএ না থাকায় উপাচার্যের বিশেষ ক্ষমতাবলে সর্বোচ্চ নম্বরধারী তিনজনকে বৃত্তি দেওয়া হয়েছে। তবে রিঅ্যাডমিশন, বোর্ড বা অন্যান্য সংস্থা থেকে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা এর আওতায় এলে বৃত্তি পাবেন না বলে নীতিমালায় উল্লেখ রয়েছে।

অন্যদিকে, অবৈতনিক ক্যাটাগরিতে প্রতিটি বিভাগের প্রতি ব্যাচের ১০ শতাংশ শিক্ষার্থীকে মনোনীত করা হয়েছে। এই ক্যাটাগরিতে বৃত্তিপ্রাপ্ত ১ হাজার ১১৭ শিক্ষার্থীও আগামী এক বছরে পরবর্তী দুই সেমিস্টার বিনা বেতনে অধ্যয়ন করবেন। এ বৃত্তিপ্রাপ্তির বিবেচ্য বিষয়াবলির মধ্যে বাবার বার্ষিক আয়, মায়ের বার্ষিক আয়, অভিভাবকের বার্ষিক আয় (বাবার অবর্তমানে), বাবার চাকরি বা পেশার বিবরণ, মায়ের চাকরি বা পেশার বিবরণ, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে বাবা ও মায়ের মৃত্যুসংক্রান্ত তথ্য, সংশ্লিষ্ট ছাত্র-ছাত্রীর মেধা ও উপস্থিতি এবং আচরণ, পরিবারের সদস্য সংখ্যা, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে সংশ্লিষ্ট ছাত্র-ছাত্রীর কোনো ভাই-বোন অধ্যয়ন করে কি না এবং সংশ্লিষ্ট শিক্ষাবর্ষের কোর্স কো-অর্ডিনেটরের মতামত গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া এ বছরই প্রথমবারের মতো চালু হয়েছে প্রতিরক্ষা বৃত্তি । এই ক্যাটাগরিতে ২৫০ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেওয়া হবে। এর মধ্যে বিএনসিসি ১০০ জন, রোভার স্কাউটস ১০০ জন ও রেঞ্জার ইউনিট থেকে ৫০ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পাবেন। বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের প্রতি মাসে ৩০০ টাকা হারে বছরে এককালীন ৩ হাজার ৬০০ টাকা দেওয়া হয়েছে। বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মোট ৭৫ হাজার টাকা শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হবে এবং তারাও আগামী এক বছর বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ পাবেন।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, মেধা ও অবৈতনিক বৃত্তিপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এর আগে প্রতি মাসে ৪০০ টাকা করে দেওয়া হলেও এবার তা বৃদ্ধি করে ৬০০ টাকা করা হয়েছে। বিভাগগুলো থেকে যাদের নাম দেওয়া হয়েছে, তাদেরই বৃত্তি দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০১৩-১৪ থেকে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত মোট ৩ হাজার ৫৫৩ শিক্ষার্থী, ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ১ হাজার ১১৬ জন, ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ৯৩৯ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেওয়া হয়।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top