‘সুন্দরবনে দস্যুতায় নামার চেষ্টা করলে তাদের পরিণতি খারাপ হবে’

0120200628165548-1.jpg

সুন্দরবনে নতুন করে দস্যুতায় নামার চেষ্টা করলে তাদের পরিণতি খারাপ হবে। আমাদের গোয়েন্দা নজরদারির হাত থেকে কেউ পার পাবে না।

রোববার (২৮ জুন) দুপুরে খুলনায় র‌্যাব-৬ এর কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাবের নবনিযুক্ত মহাপরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন এ কথা বলেন।

র‌্যাব ডিজি বলেন, সুন্দরবনে নতুন করে দস্যুতায় নেমে র্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিনজন নিহত হয়েছেন। এসময় আরও দু’জন দস্যু আটক ও দু’জন জেলেকে উদ্ধার করা হয়। তাদের কাছ থেকে পাঁচটি আগ্নেয়াস্ত্র, ৩৩ রাউন্ড গুলি, দেশীয় অস্ত্র, দস্যুতায় ব্যবহারিক অন্য জিনিসপত্র ও ট্রলার জব্দ করা হয়েছে। সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জের মামদো নদী, মালঞ্চ নদী, খোপড়াখালী নদী ও ফিরিঙ্গি নদী এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। গত ২৫ জুন রাত থেকে ২৮ জুন ভোর পর্যন্ত অভিযান চালায় র‌্যাব।

নিহত দস্যুরা হলেন- সাতক্ষীরার হরদহ এলাকার মো. লুৎফরের ছেলে শরিফুল ইসলাম (২৪), আশাশুনি উপজেলার বসুখালীর মৃত জামাত আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান (২৪) ও অজ্ঞাত (২৫) একজন। এছাড়া আটক অপর দু’জনের নাম-পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি।

প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন- র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সরোয়ার, র‌্যাব-৬ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল রওসোনুল ফিরোজসহ অন্য কর্মকর্তারা।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: নিরাপত্তা সতর্কতা!!!