খুবির ৭ শিক্ষক পেলেন ভাইস-চ্যান্সেলর অ্যাওয়ার্ড

khulnauni-20220628155805.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক : গবেষণায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ জন শিক্ষককে ভাইস চ্যান্সেলর অ্যাওয়ার্ড ২০২০ ও ২০২১ প্রদান করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ জুন) সকাল সাড়ে ১০টায় শহিদ তাজউদ্দীন আহমদ ভবনের সম্মেলন কক্ষে এই অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

২০২০ সালের অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত শিক্ষকরা হলেন গণিত ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মো. হায়দার আলী বিশ্বাস, ফরেস্ট্রি অ্যান্ড উড টেকনোলজি ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান, বাংলা ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মো. রুবেল আনছার ও অর্থনীতি ডিসিপ্লিনের প্রভাষক সৈয়দ আফরোজ কেরামত।

২০২১ সালের অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত শিক্ষকরা হলেন ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. আব্দুল্লাহ-আল নাহিদ, ফরেস্ট্রি অ্যান্ড উড টেকনোলজি ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মো. নজরুল ইসলাম এবং ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিনের প্রভাষক মো. আশফিকুর রহমান।অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত প্রত্যেক শিক্ষককে তিনি ৫০ হাজার টাকার একটি চেক, একটি সনদপত্র ও একটি মেডেল প্রদান করেন।

আরও পড়ুন : পাকস্থলীর ক্যান্সার কেন হয়, লক্ষণ

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন বলেন, শিক্ষকদের গবেষণায় উদ্বুদ্ধ করতে ভাইস চ্যান্সেলর অ্যাওয়ার্ড চালু করা একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। মানুষ কাজ করে নেশায়, স্বীকৃতির জন্য নয়। গবেষণা ঠিক সে রকম, গবেষণার জন্য নিরন্তর প্রচেষ্টা ও সাধনার দরকার হয়। তবে উৎসাহ বৃদ্ধিতে কাজের স্বীকৃতি প্রয়োজন। স্বীকৃতি মানুষকে কাজ করতে উদ্বুদ্ধ করে, উদ্যমকে বাড়িয়ে দেয়। এটি দেখে অন্যরাও গবেষণায় আরও বেশি উৎসাহিত হয়। এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে এটি প্রেরণা জোগায়।

তিনি আরও বলেন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে শিক্ষা, গবেষণায় উন্নীত করতে গৃহীত পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের মানকে উচ্চতর পর্যায়ে নিয়ে যেতে কাজ করা হচ্ছে। আমাদের মনে রাখতে হবে, আগামীতে এপিএর স্কোর না বাড়লে আমরা পর্যাপ্ত বাজেট পাব না।

অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্তদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, এই অ্যাওয়ার্ডের মর্যাদা রক্ষ করতে হবে। আমরাও প্রশাসনের পক্ষ থেকে গবেষণায় সাধ্যমতো সহযোগিতা করব। তবে শুধু ইউজিসি কিংবা বিশ্ববিদ্যালয় নয়, আন্তর্জাতিক সংস্থা/প্রতিষ্ঠান থেকে গবেষণার অর্থসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে।

তিনি তার বক্তব্যের শুরুতে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে এই অ্যাওয়ার্ড চালু করার উদ্যোগ গ্রহণের জন্য পূর্ববর্তী উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. ফায়েক উজ্জামানের নাম উল্লেখ করে তাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. হোসনে আরা। সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস।

গবেষণা সেলের পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) প্রফেসর ড. কাজী মো. দিদারুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন গবেষণা সেলের যুগ্ম পরিচালক প্রফেসর ড. লস্কর এরশাদ আলী।সেলের যুগ্ম পরিচালক প্রফেসর ড. তুহিন রায়ের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে অনুভূতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. মো. হায়দার আলী বিশ্বাস ও প্রভাষক মো. আশফিকুর রহমান। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্কুলের ডিন, ডিসিপ্লিন প্রধান, প্রভোস্ট, পরিচালকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top