বন্যার্তদের পাশে ভারতের বিপক্ষে ৫ গোল করা নারী ফুটবলার

image-565532-1655961062.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : যে যার ক্ষমতা ও পরিসর থেকে সিলেট-সুনামগঞ্জ ও নেত্রকোনার বন্যাদুর্গতদের সহায়তা করে যাচ্ছে।চলচ্চিত্র ও সংগীতাঙ্গনে অনেকেই ত্রাণ সহায়তা নিয়ে এখন বন্যার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। ত্রাণসামগ্রী নিয়ে বানভাসিদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন দেশের আলেম সমাজও।

এদিকে পিছিয়ে নেই ক্রীড়াঙ্গনও। ত্রাণ সহায়তা দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠেয় আজ ও রোববারের ম্যাচ দুটির বিক্রি হওয়া টিকিটের সব অর্থ সিলেটে বন্যার্তদের সহায়তায় দেবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। তবে দেশের এক কিশোরী ফুটবলার শাহেদা আক্তার রিপার সহায়তা নিয়ে আলাদা করে বলতেই হয়।

বুধবার সন্ধ্যায় এ নারী ফুটবলার ঘোষণা দিয়েছেন, সিলেটের বন্যার্তদের সাহায্যের জন্য তিনি নিলামে তুলতে চান তার জেতা সর্বোচ্চ গোলদাতার একটি ট্রফি।গত বছর ডিসেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। ওই টুর্নামেন্টে ৫ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার ট্রফি জেতেন রিপা। বন্যার্তের সহযোগিতায় সেই ট্রফিই হাতছাড়া করতে চান রিপা।এ বিষয়ে নিজের ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন শাহেদা আক্তার রিপা।

আরও পড়ুন : এবার ‘পদ্মা সেতু’ নিয়ে গাইলেন রাশেদ-ঝিলিক

লিখেছেন— ‘আমার ছোট্ট ক্যারিয়ারে সবচেয়ে যেটি বড় পাওয়া, ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপ টুর্নামেন্টে আমরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম। ওই টুর্নামেন্টে আমি সর্বোচ্চ গোলদাতা (৫ গোল) হয়েছিলাম। আমি তিন ম্যাচে সেরা খেলোয়াড়ও হয়েছিলাম। সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়ে পাওয়া ট্রফিটি আমি নিলামে তুলতে চাই। যার সম্পূর্ণ অর্থ ব্যয় হবে সিলেটের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য। কোনো দয়াবান ব্যক্তি যদি এই মহৎ কাজের অংশীদার হন, তা হলে আমরা কিছুটা হলেও বন্যার্ত মানুষের পাশে থাকত পারব।’বাড়িতে শো-কেসে রাখা ট্রফি তার জন্য সবসময় গর্ব জানান দিলেও এটি মানুষের কোনো কাজে আসবে না বলে জানান রিপা।

তিনি লিখেছেন— ‘এ মুহূর্তে সিলেটের সবচেয়ে বেশি যেটি দরকার, সেটি হলো সবার সহযোগিতা। আমি যদি সিলেটের পাশে একটু হলেও দাঁড়াতে পারি তা হলে আপনাদের সবার প্রতি চিরকৃতজ্ঞ থাকব।’

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top