রাজধানীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে কৃষক-ব্যবসায়ী

aggan-20211115175826-202202051719171-20220622172021.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজধানীর বনানীর কাকলিতে ছোট ভাইয়ের বিদেশে যাওয়ার টাকা জমা দিতে এসে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছেন শফিকুল ইসলাম (৪৫) নামের এক কৃষক। আরেক ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা বন্ধন পরিবহনের একটি বাসে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েন মজিত আলী (৫০) নামে এক ব্যবসায়ী।

বুধবার (২২ জুন) দুপুর ১টার দিকে বনানীর কাকলিতে ছোট ভাইয়ের বিদেশে যাওয়ার টাকা জমা দিতে এসে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েন শফিকুল ইসলাম (৪৫)। এ সময় তার কাছে থাকা ২ লাখ টাকা নিয়ে গেছে প্রতারক চক্রটি। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে বিকেল ৪টার দিকে অচেতন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়।

শফিকুল ইসলামের ছোট ভাই আব্দুস সামাদ বলেন, ছোট ভাইয়ের বিদেশে যাওয়ার জন্য দুই লাখ টাকা একটি অফিসে জমা দিতে ময়মনসিংহ থেকে ঢাকায় আসেন। দুপুরে আমরা খবর পাই কাকলিতে রাস্তার পাশে অচেতন অবস্থায় পড়ে আছেন। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসি। তাকে মেডিসিন বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে।

আর নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা বন্ধন পরিবহনের একটি বাসে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েন মজিত আলী (৫০) নামে এক ব্যবসায়ী। বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

মজিত আলীকে উদ্ধার করে নিয়ে আসা বাসের যাত্রী নাজমুল ইসলাম বলেন, বন্ধন পরিবহনের বাসে নারায়ণগঞ্জের চাষাড়া থেকে ঢাকায় আসি। বাসেই তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়ে ছিলেন। ওই সময় তার কিছুটা জ্ঞান ছিল। তিনি মাছ ব্যবসায়ী বলে জানিয়েছিলেন তখন। বাড়ি যশোর। পরে অচেতন অবস্থায় তাকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top