অবিরাম ছুটে চলা একজন জনপ্রতিনিধি

image-564917-1655837042.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : নড়াইল থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা প্রতিনিয়ত এলাকাবাসীর সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন।সোমবার ও মঙ্গলবার (২১ জুন) তিনি বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড উদ্বোধন, সম্ভাব্য প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনসহ এলাকার মানুষের কাছে বিভিন্ন সমস্যার কথা শোনেন। এসব বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের দ্রুত সমাধানের নির্দেশ ও পরামর্শ দেন তিনি।মাশরাফি নড়াইল জেলাকে মডেল জেলা হিসেবে গড়ে তুলতে সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

সোমবার (২০ জুন) বেলা ১১টায় নড়াইলে এসএম সুলতান বেঙ্গল চারুকলা মহাবিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের উদ্বোধের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু করেন নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত এই জীবন্ত কিংবদন্তি। এরপর তিনি যান সদর উপজেলার মুলিয়া ইউনিয়নে। মুলিয়া কাজলা নদীর উপর সেতু নির্মাণের দাবি দীর্ঘদিনের। সরকার ইতোমধ্যে উক্ত প্রকল্প বাস্তবায়নে পিডি নিয়োগ করেছে।

সোমবার এলাকাবাসীর দাবি পূরণ করতে সাংসদ মাশরাফি বিন মুর্তজা ওই প্রকল্প পরিচালক (এলজিআরডি), আগারগাঁও প্রকৌশলী  মো. এবাদত আলীকে সঙ্গে নিয়ে কাজলা নদীতে নৌকায় চড়ে প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করেন।সদরের মুলিয়া বাজার সংলগ্ন তীর ঘেঁষে বয়ে যাওয়া ছোট্ট নদী কাজলা দুই পারের প্রায় লক্ষাধিক মানুষকে বিভক্ত করে রেখেছে। এই সেতু নির্মিত হলে পশ্চিম তীরের প্রায় ৩০টি গ্রামের উৎপাদিত কৃষি পণ্যের সহজে বাজারজাতসহ আঞ্চলিক উন্নয়নের পাশাপাশি হাজার হাজার মানুষের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

পরিদর্শন শেষে উপস্থিত জনগণের উদ্দেশ্যে এক বক্তৃতায় এমপি মাশরাফি বলেন, বৈশ্বিক করোনা মহামারির কারণে আমাদের পরিকল্পনার অনেক কাজ দীর্ঘদিন থমকে ছিল, যার ফলে আমরা অনেকটা পিছিয়ে পড়েছি। তবে সবাই দোয়া করবেন, এখন আমরা আবার বিভিন্ন কাজ শুরু করতে পারছি। সবার দোয়া থাকলে, সহযোগিতা থাকলে ভালো কিছু হবে ইনশাআল্লাহ।এরপর এলজিইডি, নড়াইলের বাস্তবায়নে সদর উপজেলাধীন সিতারামপুর আরএন্ডএইচ-মুলিয়া ইউপি অফিস সড়ক বিসি দ্বারা উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন তিনি। এ সময় মাশরাফির সঙ্গী ছিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান ও এলজিইডির প্রকৌশলী সুজায়েত রহমান।

আরও পড়ুন : যেসব কারণে পদ্মা সেতু বাঁকা

এরপর তিনি স্থানীয় স্কুলের শিশু শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সময় কাটান। এ সময় ওই স্কুলের শিক্ষার্থীরা প্রিয় তারকার সঙ্গে সময় কাটায়, ছবি তোলে। মাশরাফি খেলার মাঠ নির্মাণসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের ব্যাপারে প্রতিশ্রুতি দেন শিশুদের।সকাল থেকে দিনব্যাপী মোটরসাইকেল চড়ে তিনি প্রত্যন্ত এলাকায় যাওয়ার পথে পথে থেমে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ এলাকার মানুষদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন ও তাদের খোঁজখবর নেন সাংসদ মাশরাফি। এলাকার যে কোনো সমস্যার কথা মনোযোগ সহকারে শোনেন তিনি।

সর্বশেষ মঙ্গলবার (২১ জুন) বিকাল পর্যন্ত নড়াইলের লোহাগড়ায় এমপির ঐচ্ছিক তহবিল থেকে দুস্থ অসহায় জনগণের মাঝে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে এলাকায় খুন-খারাবি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন এমপি মাশরাফি। এটি নির্মূলে সবাই একসঙ্গে কাজ করার পরামর্শ দেন তিনি। স্থানীয় গ্রাম্য কোন্দলের বিবদমান গ্রুপগুলোকে এক করে একসঙ্গে চলা যায় কি-না সেই ব্যাপারেও পরামর্শ দেন তিনি। এ সময় লোহাগড়া পৌরভবন নির্মাণের প্রতিশ্রুতিসহ নানা উন্নয়নের আশ্বাস দেন মাশরাফি।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top