বন্যাকবলিত এলাকায় বিমানবাহিনীর ত্রাণ বিতরণ

image-564782-1655793059.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : সিলেট, সুনামগঞ্জ ও নেত্রকোনাসহ দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যা মোকাবিলায় বাংলাদেশ বিমানবাহিনী বন্যাকবলিত এলাকায় ত্রাণ বিতরণ ও বিভিন্ন সেবামূলক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে।সোমবার বন্যাকবলিত দুর্গম হাওড় এলাকায় পানিবন্দি মানুষের কাছে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছানোর জন্য বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বেল-২১২, এমআই-১৭ হেলিকপ্টার এবং এল-৪১০ পরিবহণ বিমানের মাধ্যমে সিলেট ও সুনামগঞ্জের তাহিরপুর, জামালগঞ্জ উপজেলার দুর্গম হাওড় অঞ্চলে পানিবন্দি মানুষের মধ্যে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছানো হয়।

একই দিনে বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বন্যার সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য একটি এডব্লিউ-১৩৯ সার্চ অ্যান্ড রেসকিউ হেলিকপ্টারের মাধ্যমে সিলেট, সুনামগঞ্জ বন্যাকবলিত অঞ্চলে যান।

এর আগে বিমানবাহিনী ঘাঁটি বাশারে আয়োজিত একটি প্রেস ব্রিফিংয়ে ভারপ্রাপ্ত বিমানবাহিনীপ্রধান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. শফিকুল আলম সিলেট, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোনা জেলাজুড়ে বিদ্যমান বন্যা পরিস্থিতিতে বিমানবাহিনীর চলমান কার্যক্রম ও পরবর্তী পরিকল্পনা সম্পর্কে সাংবাদিকদের অবহিত করেন।

এই সংকটাপন্ন অবস্থায় বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টার দিয়ে উদ্ধার ও ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিমান বাহিনীর জন্মলগ্ন থেকেই বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় ও দুর্গত মানুষদের সহায়তায় বাংলাদেশ বিমান বাহিনী সর্বদা অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে।

তিনি আরও বলেন, ১৯৮৮, ১৯৯৮, ২০০৮ ও ২০১৭ সালের বন্যাসহ ২০০৭ সালে সৃষ্ট সিডর এবং অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগকালে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। বর্তমান বন্যা পরিস্থিতিতেও বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টারসমূহ উদ্ধার ও ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছে।এছাড়া সিলেট বিমানবন্দরে বন্যা পরিস্থিতি উন্নতি সাপেক্ষে বিমান বাহিনীর পরিবহণ বিমানসমূহ ত্রাণ তৎপরতায় অংশগ্রহণ করবে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন : বন্যায় ভেসে গেছে ৫০০ মৎস্য খামার, ৩ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

উল্লেখ, সংক্ষিপ্ত সময়ে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ ও উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সিলেটের মৌলভীবাজারে অবস্থিত বিমানবাহিনী স্টেশন শমসেরনগরে ২টি হেলিকপ্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে এবং পাশাপাশি বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বিভিন্ন ঘাঁটিতে টাস্কফোর্স ও মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে, যারা প্রয়োজনে স্থানীয় প্রশাসনকে বন্যায় আপদকালীন সাহায্য করতে সক্ষম হবে।

মৌলভীবাজারের শমসেরনগর বিমানবাহিনীর স্টেশনের দায়িত্বশীল সূত্র জানান, সোমবার ঢাকা ও মৌলভীবাজারের শমসেরনগর বিমানবাহিনীর স্টেশন থেকে তিনটি হেলিকপ্টারযোগে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ ও তাহিরপুর উপজেলার বন্যাকবলিত পরিবারগুলোর মধ্যে বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়।

বন্যাকবলিত এলাকাগুলোতে হেলিকপ্টার ল্যান্ডিং করার মতো জায়গা না থাকায় হেলিকপ্টার থেকেই বন্যার্তদের হাতে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছানোর ব্যবস্থা নেবেন বিমানবাহিনীর সদস্যরা।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top