দুই নদীর মোহনায় ক্যাম্পাস নির্মাণ কষ্টসাধ্য হলেও অসম্ভব নয়

sirajganj-20220621185550.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে দুই নদীর মোহনায় রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণ কষ্টসাধ্য হলেও অসম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ্ আজম।

রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের আচার্য মো. আবদুল হামিদ এর সঙ্গে গুচ্ছভুক্ত ২২টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় এমন অভিমত ব্যক্ত করেছেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। এসময় তিনি রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের নানান বিষয়ে রাষ্ট্রপতিকে অবিহিত করেন।

গত রোববার (১৯ জুন) সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ গুচ্ছভুক্ত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণের সঙ্গে মতবিনিময়কালে রবি উপাচার্য এমন আশা ব্যক্ত করেন। বিষয়টি জানিয়েছেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শাহ আলী।

শাহ আলী জানান, রাষ্ট্রপতি রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে বিশেষভাবে কথা বলেন এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে জানতে চাইলে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান অগ্রগতি, পড়াশোনা এবং যেভাবে কাজ চলছে সেই বিষয়টি রাষ্ট্রপতির কাছে উপস্থাপন করেন।

তিনি বলেন, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রগতি ও পড়াশোনার বিষয়ে অবগত হয়ে রাষ্ট্রপতি সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং রবি উপাচার্যকে বলেন, যদিও দুই নদীর মোহনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস নির্মাণ কষ্টসাধ্য তারপরও আপনি পারবেন বলে আমি মনে করি। এসময় রাষ্ট্রপতিকে আশ্বস্ত করে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বলেন, দুই নদীর মোহনায় রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস নির্মাণ কষ্টসাধ্য হলেও আমরা তা পারব।

এসময় রাষ্ট্রপতি গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানান এবং এক্ষেত্রে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের কষ্ট অনেকটা লাঘব হবে বলে উল্লেখ করেন। যে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এখনো গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষার বাইরে আছে তারাও এই গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষার আওতায় আসবে বলে রাষ্ট্রপতি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এসময় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ ২২টি গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুকের সাথে কমেন্ট করুন

Share this post

PinIt

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top